মাগরিবের নামাজের ওয়াক্ত খুবই কম মনে করা 

প্রকাশিত: ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ০৪:০২:৪৪ || পরিবর্তিত: ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ০৪:০২:৪৪

মাগরিবের নামাজের ওয়াক্ত খুবই কম মনে করা 

মাগরিবের আজান শেষ হওয়ার সাথে সাথেই জামাত শুরু হয়ে যাওয়া মসজিদের অভাব আমাদের সমাজে নেই। আবার অনেকেই আজানের বিশ-পঁচিশ মিনিটের ভিতরে নামাজ আদায় না করতে পারলে নামাজ ক্বাজা হয়েছে বলে আর আদায়ই করেননা বা ক্বাজা আদায় করেন। 

অধিকাংশ মুসলমানদের ইসলামি শরিয়াহ'র ব্যাসিক এবং  গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু ভুল কয়েকটি কনসেপ্ট এর মধ্যে অন্যতম হলো এই বিষয়টি। অধিকাংশের জানা মতে, মাগরিবের ওয়াক্ত সর্বোচ্চ ২০-২৫ মিনিট। এমনকি কতেক মসজিদের ঈমামের কনসেপ্টও সেইম।

সূর্যাস্তের পর থেকে পশ্চিম আকাশের সাদা আভা থাকা পর্যন্ত মাগরিবের ওয়াক্ত থাকে। সাদা আাভা চলে যাওয়ার পর থেকেই এশার ওয়াক্ত শুরু হয়ে যায়। মাগরিব আর এশার ওয়াক্তের মাঝে কোনো ফাঁকা সময় নেই। 
রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেন, “মাগরিবের সালাতের ওয়াক্ত থাকে যতক্ষণ না শাফাক অন্তর্হিত হয়..।” [সহীহ মুসলিম:১৪১৯]

অন্যত্র হাদিসে বর্ণিত আছে যে,  রাফে ইবনে খুদাইজ বলেন, “আমরা রাসুলের (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর সাথে নামাজ পড়তাম। তারপর আমাদের কেউ গিয়ে তীর ছুঁড়লে আমরা তার সেই তীর পড়ার জায়গাটা দেখতে পেতাম। [মেশকাত শরিফ, পৃ: ৬০] 

খুব অন্ধকার না হলে তীর দেখা পড়ার জায়গা অবশ্যই দেখা যায়।একটু পরিক্ষা করলেই দেখা যাবে যে,  বর্তমানেও সূর্যাস্তের ১ ঘন্টা পর্যন্ত তীর বা তীর পতিত হওয়ার জায়গা খুব ভালো করেই দৃশ্যত হয়। 

মাগরিবের নামাজের ওয়াক্ত নিয়ে রাসুলের (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) অসংখ্য হাদিস রয়েছে। প্রায় সব হাদিসের ভাষ্যমতে ওয়াক্ত শুরু হয় সূর্যাস্তের পর আর শেষ হয় ‘শাফাক ’অদৃশ্য হওয়া পর্যন্ত। এই বিষয়ে কোন আ'লেম বা ঈমামের দ্বিমত নেই। মতানৈক্য আছে ‘শাফাক’ কি এই বিষয় নিয়ে। কেউ বলেন, শাফাক অর্থ সূর্যের লালিমা।
 কেউ বলেন, শাফাক অর্থ সাদা রেখা; যে রেখাটি সূর্যের লালিমা অন্তর্হিত হওয়ার পর আকাশের প্রান্তে দেখা যায়। এই সাদা রেখা অন্তর্হিত হওয়ার পর আকাশের প্রান্ত কালো হয়ে যায় এবং দৃষ্টি থেকে তখন আকাশের প্রান্ত আর দৃশ্যযোগ্য থাকে না। আকাশের প্রান্ত তখন দৃষ্টি থেকে অদৃশ্য হয়ে যায়। তবে যে হাদিসগুলো দ্বারা ‘শাফাক’ বলতে শুধু সূর্যের লালিমা বুঝানো হয়েছে তার অধিকাংশ হাদিসই জাল বা যইফ। অধিকাংশ ঈমামদের মত ‘শাফাক’ হলো সাদা রেখা।

আধুনিক সময় পরিমাপ যন্ত্রের মাধ্যমে জানা যায়, সূর্যাস্তের পর থেকে সাদা রেখা অদৃশ্য হওয়ার আগ পর্যন্ত এই সময়টার ব্যাপ্তি ১ ঘন্টা ১০/১৫ মিনিট বা তারমতো। সিজনভেদে সময়ের হালকা পরিবর্তন হলেও তা প্রায় ১ ঘন্টার মতোই থাকে। যেখানে আমাদের ধারণা মাত্র ২০ বা ২৫ মিনিট। হ্যাঁ, ওয়াক্ত শুরুর প্রথম প্রহরে নামাজ আদায় করা অবশ্যই উত্তম। কিন্তু এরপর নামাজ আদায় করলে নামাজ যে হবেনা এই মতবাদ পোষণ করা সম্পূর্ণ ত্রুটিপূর্ণ এবং মূর্খামি।

এক্ষেত্রে মসজিদে আজানের পর জামাত ৮/১০ মিনিট পর শুরু হওয়াই শ্রেয়। যেই মত পোষন করেন উম্মাহর বিদগ্ধ একজন আ'লেম জনাব আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর (রাহেমাহুল্লাহু আনহু)। [জিজ্ঞাসা ও জবাব ১ম খন্ড]
আর! একা নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে প্রথমদিকে আদায় করা মুস্তাহাব। কিন্তু কোন কারণে তা অসম্ভব হয়ে পড়লে ১ ঘন্টার ভিতরে আদায় করে নিলেও ফরজ আদায় হয়ে যাবে। 

শেখ মুযযাম্মিল হুসাইন শুভ।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন