নামাজে দোয়া মাসুরার পর অন্য কোনো দোয়া করা যাবে কি?

প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর, ২০২৩ ০৫:৫৫:০৯

নামাজে দোয়া মাসুরার পর অন্য কোনো দোয়া করা যাবে কি?

অনলাইন ডেস্ক: দোয়া মাসুরা অর্থ কোরআন বা হাদিসে রয়েছে এমন কোনো দোয়া। ফরজ বা নফল নামাজের শেষ বৈঠকে দরুদ পড়ার পর কোরআন-হাদিসে বর্ণিত রয়েছে এমন কোনো দোয়া পড়া মুস্তাহাব। কেউ চাইলে এরকম একাধিক দোয়াও পড়তে পারে।

তবে নামাজে নিজের ভাষায় বা অন্য কোনো মানুষের রচিত দোয়া করা যাবে না। কোরআন হাদিসে বর্ণিত কোনো দোয়ার অনুবাদও নামাজে পড়া যাবে না। রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) মানুষের কথা নামাজের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করতে নিষেধ করেছেন। রাসুল (সা.) বলেছেন, নামাজ মানুষের কথাবার্তা বলার ক্ষেত্র নয়। এটা শুধু তাসবিহ, তাকবির ও কোরআন তিলাওয়াতের জন্য সুনির্দিষ্ট। (সহিহ মুসলিম)

নামাজে আল্লাহর প্রশংসা, বড়ত্ব বর্ণনা ও কোরআন তিলাওয়াতের বাইরে অন্য কোনো কথা বলা জায়েজ নয়। নামাজ অবস্থায় ইচ্ছাকৃতভাবে বা ভুল করে কিছু বললে নামাজ ভেঙে যাবে। কাউকে সালাম দিলেও নামাজ ভেঙে যাবে। শুধু নিজে শুনতে পায় এতটুকু নিচু আওয়াজে কথা বলে ফেললেও নামাজ ভেঙে যাবে। কেউ যদি নামাজ আদায়রত ব্যক্তিকে সালাম দেয়, নামাজি ইচ্ছাকৃতভাবে বা ভুল করে সশব্দে অর্থাৎ মুখে সালামের উত্তর দেয়, তাহলেও নামাজ ভেঙে যাবে।


প্রজন্মনিউজ২৪/এফএ

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ