জানাজা পড়াতে কি বালেগ হতে হয়?

প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ০৬:৪১:১৯

জানাজা পড়াতে কি বালেগ হতে হয়?

অনলাইন ডেস্ক: মৃতের মাগফিরাতের জন্য জানাজা ও কাফন-দাফন ইত্যাদি সম্পন্ন করা জীবিত মুসলিমদের ওপর মৃতের অধিকার। শরিয়তের দৃষ্টিকোণ থেকে এটি অবশ্যিক পালনীয় ফরজ (কেফায়া)। তাই কোনো মুসলমান মারা গেলে, তার জানাজা অবশ্যই আদায় করতে হবে।

জানাজার নামাজ মূলত মৃত ব্যক্তির জন্য দোয়া ও মাগফিরাত। একাধিক মৃতের জানাজা একসঙ্গে পড়া যায়। মহল্লার ইমাম জানাজা পড়ানোর ক্ষেত্রে বেশি হকদার। এরপর মৃতের ওলি বা আত্মীয়-স্বজন। তবে ওলি-আত্মীয় ইমামের চেয়ে বেশি দ্বীনদার হলে তার-ই বেশি হক।

জানাজা নামাজে ইমামতি করার জন্য ইমামের ভেতর এমন যোগ্যতা থাকা অবশ্যক যা অন্যান্য নামাজের জন্যও জরুরি। যেমন, ইমাম প্রাপ্ত বয়স্ক হওয়া, কোরআন তিলাওয়াত বিশুদ্ধ হওয়া এবং মাসআলা-মাসায়েল সম্পর্কে সঠিক ধারণা থাকা।

এর বাইরে নাবালক শিশুর জন্য জানাজা নামাজের ইমামতি করা বৈধ হবে না। হাদিস শরিফে এসেছে, মুজাহিদ (রহ.) বলেন, ‘নাবালক বাচ্চা বালেগ হওয়ার আগ পর্যন্ত ইমামতি করতে পারবে না।’ (মুসান্নাফে ইবনে আবী শায়বা, হাদিস, ৩৫০৬)

তাই নাবালক বাচ্চা জানাজার নামাজের ইমামতি করতে পারবে না এবং করলেও তার ইমামতি ঠিক হবে না।


প্রজন্মনিউজ২৪/এফএ

এ সম্পর্কিত খবর

কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে ১০ জন নিহত

পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে রেসিডেনসিয়াল কলেজ শিক্ষার্থী ফারহান নিহত

২১, ২৩ ও ২৫ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত

ছাত্রলীগ-যুবলীগকে ‘সন্ত্রাসী সংগঠন’ ঘোষণার দাবি প্রসঙ্গে যা বললেন মার্কিন সরকারের মূখপাত্র

সাময়িকভাবে মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ করা হয়েছে : পলক

উত্তরা-আজমপুরে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ৪

কোটা ব্যবস্থার যৌক্তিক সমাধান চায় চবি শিক্ষক সমিতি

কোটা আন্দোলনে প্রাণহানির তদন্ত দাবি জাতিসংঘের

কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটিতে আটকা পুলিশ, উদ্ধারে এলো হেলিকপ্টার

আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসছে সরকার, বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ