কারিনার ভিন্নরকম প্রত্যাবর্তন

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ০৬:৫৩:৩০

কারিনার ভিন্নরকম প্রত্যাবর্তন

অনলাইন ডেস্ক : কারিনা কাপুর খান, এই তো কয়েক বছর আগেই ছিলেন বলিউডের সবচেয়ে চাহিদাসম্পন্ন অভিনেত্রী। বলিউডের বর্তমান অভিনেত্রীদের মধ্যে শীর্ষে তার নাম না থাকলেও প্রথম সারির অভিনেত্রীদের মধ্যেই রয়েছে এই অভিনেত্রীর নাম। শীর্ষ অভিনেত্রী না হলেও বক্স অফিস কালেকশনে ঠিকই শীর্ষ স্থান দখল করে নিয়েছেন। কারিনার সামগ্রিক বক্স অফিস কালেকশন প্রায় ৪ হাজার কোটি রুপি যা হিন্দি সিনেমার ইতিহাসে যে কোনো অভিনেত্রীর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ। এই তারকার ধারে কাছেও নেই অন্য অভিনেত্রীরা। দীপিকা পাড়ুকোন, আনুশকা শর্মা ও আনুশকা শেঠি এই তিন অভিনেত্রী শুধু পার করতে পেরেছেন ৩ হাজার কোটি রুপির গণ্ডি।

এছাড়া দুই হাজার কোটি রুপির মাইলফলক অতিক্রম করা অভিনেত্রীদের মধ্যে আছেন ঐশ্বর্য রাই, আলিয়া ভাট, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, ক্যাটরিনা কাইফ ও নয়নতারা প্রমুখ।

কারিনা কাপুর খান তার ক্যারিয়ারে দর্শককে উপহার দিয়েছেন ২৩টি সুপারহিট সিনেমা। যার মধ্যে রয়েছে ‘বাজরাঙ্গি ভাইজান’, ‘থ্রি ইডিয়টস’, ‘কাভি খুশি কাভি গাম’, ‘জাব উই মেট’, ‘বডিগার্ড’, ‘গুড নিউজ’। এর মধ্যে ‘বাজরাঙ্গি ভাইজান’ এর আয় ছিল ৯১৮ কোটি রুপি।

এত সাফল্যের পরও অনেক দিন ধরে অভিনয় থেকে দূরে রয়েছেন কারিনা। কাজ আগে নাকি সংসার আগে বিয়ে এবং সন্তান জন্মের পর অনেক অভিনেত্রীই দোটানায় পড়ে যান। কিন্তু কারিনা কাপুর জানিয়ে দেন, তার গুরুত্বের কথা। পরিষ্কার বলে দেন, সেখানে সবার আগে তার সন্তান-পরিবার, তারপর সিনেমা। অভিনেত্রী নিজে এখন এমন জায়গায় পৌঁছে গেছেন, তার খ্যাতির আলোয় তার সন্তানরাও আজ ওইটুকু বয়েসেই তার দুই সন্তান তৈমুর আলি খান এবং জাহাঙ্গীর আলি খান প্রায় স্টার তকমা পেয়েছে। কারিনার বক্তব্য, আমরা মানে আমি আর আমার স্বামী সাইফ আলি খান খুব খোলা মনের মানুষ। আমরা বাবা-মা হিসেবে কোনো কিছুই মিডিয়ার থেকে গোপন করি না। আমি আমার সন্তানদের ছবি তুলতে দিই কারণ আমি বিশ্বাস করি সম্মান দিলে সেটা ফেরত পাব। আমি এটা চাইতে পারি না। তাই আমি চাইব বাকি সবাই আমাদের ব্যক্তিগত সময়টাকে সম্মান জানাবে। আর বিশ্বাস করুক, এটা কাজ করে।’

সংসার ও স্বামী-সন্তান সামলিয়েও মিডিয়া থেকে বাইরে চলে যাননি তিনি। প্রায়ই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেখা মেলে তার। পাশাপাশি টিভিতে একটি তারকাদের আড্ডামূলক একটি অনুষ্ঠানেও সঞ্চালকের ভূমিকায় দেখা যায় তাকে। তাছাড়া তাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হরহামেশাই হাজির থাকতে দেখা যায়। এই ফাঁকে সময়-সুযোগ পেয়ে একটি সিনেমা ও ওয়েব ফিল্মে কাজ করেছেন। বর্তমানে এই অভিনেত্রীর হাতে রয়েছে রিয়া কাপুরের ‘দ্য ক্রিউ’ নামের একটি সিনেমা।

তবে সিনেমার পাশাপাশি ওয়েব ফিল্ম নিয়ে নতুন করে হাজির হচ্ছেন চলতি মাসেই। আগামী ২১ সেপ্টেম্বর কারিনার জন্মদিন উপলক্ষে বহুল আলোচিত ওটিটি প্ল্যাটফর্ম নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাচ্ছে এই অভিনেত্রীর প্রথম ওয়েব ফিল্ম ‘জানে জান’।

আগামী ২১ সেপ্টেম্বর অভিনেত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাবে ওয়েব সিনেমাটি। থ্রিলারধর্মী এই সিনেমাটির ট্রেইলার প্রকাশ পেয়েছে সম্প্রতি। ট্রেইলার প্রকাশের পর থেকেই বেশ আলোচনা তৈরি করেছে দর্শক মহলে। একজন নেটিজেন লিখেছেন, ‘এটা থেকে আর ভালো কী হতে পারে। বিজয়ের সঙ্গে কারিনার রসায়ন। কারিনার জন্মই হয়েছে সিনেমার জন্য।’ আরেকজন লিখেছেন, ‘তার পর্দার উপস্থিতি দেখলে, আপনি চোখ সরিয়ে নিতে পারবেন না। এতটাই কৌতূহল জন্মাবে এই ছবিতে।’ অন্য একজন বলেছেন, ‘ট্রেইলার দেখে একেবারে মুগ্ধ! কারিনার উপস্থিতি কখনওই মুগ্ধ করতে ব্যর্থ হয় না। একজন ভক্ত হিসেবে, আমি তাকে এমন একটি ভূমিকায় দেখে আনন্দিত যা তাকে তার অবিশ্বাস্য পরিসর প্রদর্শন করায়।’

‘কাহিনী’ বানিয়ে তাক লাগিয়ে দেয়া পরিচালক সুজয় ঘোষের নতুন সিনেমা ‘জানে জান’ এর প্রধান ভূমিকায় আছেন কারিনা কাপুর। ট্রেইলারে এমন এক অবতারে ধরা দিয়েছেন কারিনা যা দর্শক আগে কখনো দেখেননি। অভিনয়, লুক, বডি ল্যাঙ্গুয়েজ সব মিলেয়ে এ যেন অন্য এক কারিনা। সিনেমাটির গল্প নেয়া হয়েছে জাপানি লেখক কেইগো হিগাশিনোর ‘দ্য ডিভোশন অব সাসপেক্ট এক্স’ থেকে। ছবিটিতে কারিনার চরিত্র মায়া ডি সুজাকে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে। গল্পে দেখা যাবে, একজন সিঙ্গেল মা, যাকে তার সাবেক স্বামীর হুমকির সম্মুখীন হতে হয়েছে বারবার। স্বামীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ স্ত্রীর জীবন। একদিন জানা গেল সেই স্বামী নিখোঁজ। পুলিশের ধারণা, স্ত্রী নিজ হাতে স্বামীকে খুন করে লাশ গুম করে ফেলেছে। খুনটা সত্যি সত্যিই হয়েছিল কিনা, তার জবাব পেতে হলে দেখতে হবে কারিনা কাপুরের প্রথম ওটিটি সিনেমা ‘জানে জান’।

বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে কারিনা কাপুর জানিয়েছিলেন, ভালো চিত্রনাট্যের জন্য একেবারে মুখিয়ে ছিলেন তিনি। আর সেই প্রত্যাশাই পূরণ হতে যাচ্ছে ‘জানে জান’ সিনেমায়। কারিনা বলেন, আমি সব সময় নতুন কিছু করার চেষ্টা করি। যখন সুজয় আমাকে ছবিটির প্রস্তাব দেন, তখন আমি এক প্রকার লাফিয়ে পড়ি। আর ছবির অন্য দুই গুরুত্বপূূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করা জয়দীপ আহলাওয়াত আর বিজয় ভার্মা দুজনেই তো ভিন্ন জগতের অভিনেতা। আমার চরিত্রে অনেক গতি দিয়েছেন তারা। সবমিলিয়ে ভালো কিছুই প্রত্যাশা করছি। তাছাড়া এটা আমার প্রথম ওয়েব ফিল্ম। একটু বেশি প্রত্যাশা তো থাকবেই।

২০০৫ সালে প্রকাশিত হয় প্রখ্যাত জাপানি উপন্যাস ‘দ্য ডিভোশন অব সাসপেক্ট এক্স’। ব্যাপক জনপ্রি এই বই নিয়ে সিনেমা তৈরির যেন হিড়িক পড়ে যায়। বইটি প্রকাশের কিছুদিন পরই পড়েছিলেন সুজয় ঘোষ। তখন থেকেই বইটি থেকে সিনেমা তৈরির আগ্রহ তার। মূল উপন্যাসে নারী চরিত্রটির বেশি গুরুত্ব ছিল না। কিন্তু সিনেমার ক্ষেত্রে বদল এনেছেন সুজয়, ট্রেইলার দেখে অনেকের মনে হয়েছে, কারিনার চরিত্রটিও যথেষ্ট গুরুত্ব পেয়েছে। গত বছরের মে মাসে কালিম্পংয়ে ছবিটির শুটিং হয়।


প্রজন্মনিউজ২৪/এফএ

এ সম্পর্কিত খবর

ডোনাল্ড লু ঘুরে যাওয়ার পর বিএনপি নেতাদের মাথা খারাপ হয়ে গেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বিশ্বকাপ দলে জায়গা না পেয়ে অভিমানে নিলেন অবসর

এক মৌসুম পর প্রিমিয়ার লিগে ফিরল লেস্টার সিটি

ইসরায়েলি গণহত্যাকে রাজনৈতিক সুরক্ষা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র : হামাস

টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

ডুয়েটে অনুষ্ঠিত হয়েছে 'প্রোগ্রামিং কনটেস্ট আইডিপিসি'- ২০২৪

বুড়িমারী স্থলবন্দরে সাজাপ্রাপ্ত ভারতীয় নাগরিক হস্তান্তর

দীর্ঘ সময় পর টি-টোয়েন্টিতে দেখা মিলবে কোহিলির

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ-সংগ্রাম নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি গবেষণা চালু করতে হবে: তপন মিত্র

হেলিকপ্টার নিয়ে মাঠে নামলেন ওয়ার্নার

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ