জেলার তিনটি আসনই আগামীতে দখলে রাখতে চায় আওয়ামী লীগ

প্রকাশিত: ০৯ ডিসেম্বর, ২০২২ ১১:৩২:১২

জেলার তিনটি আসনই আগামীতে দখলে রাখতে চায় আওয়ামী লীগ

নাজমুল ইসলাম,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ঠাকুরগাঁওয়ের রাজনৈতিক দলগুলো নিজেদের ঘর গোছাতে ব্যস্ত সময় পার করছে রাজনৈতিক দলগুলো। জেলা আওয়ামী লীগ ওয়ার্ড থেকে শুরু করে ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা সম্মেলন প্রায় শেষের দিকে। জেলার তিনটি আসনই আগামীতে দখলে রাখতে চায় আওয়ামী লীগ।

পাশাপাশি দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপিও তাদের শক্তির মহড়া দিতে ইতোমধ্যে ওয়ার্ড, উপজেলা ও জেলা সম্মেলন করছে। হামলা-মামলা যতই হোক নেতা-কর্মীরা রাজপথে নতুন উদ্যমে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।তৃতীয় শক্তি হিসেবে জাতীয় পার্টি, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি) ও ইসলামী আন্দোলন ও তাদের শক্তির জানান দিতে সাংগঠনিক কাঠামো শক্তিশালী করতে মাঠে নেমেছে।

ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুহা. সাদেক কুরাইশী বলেছেন, জেলা আওয়ামী লীগ আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে অনেক শক্তিশালী ও সুসংগঠিত।জেলার তিনটি আসনের মধ্যে দুইটিই আওয়ামী লীগের দখলে।২০২৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও জেলার তিনটি আসনে নৌকা মার্কা বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হবে।

সাদেক কুরাইশী বলেন, দেশরত্ন শেখ হাসিনার টিমওয়ার্কের মাধ্যমে জেলার উন্নয়ন কাজ এগিয়ে চলেছে। আওয়ামী লীগ সরকারের সময় ঠাকুরগাঁওয়ে যে উন্নয়ন হয়েছে তা স্বাধীনতা-পরবর্তী কোনো সরকারের আমলে হয়নি।সেই সরকারের মাধ্যমে জেলার প্রতিটি গ্রামাঞ্চল পেয়েছে বিদ্যুৎ, শিক্ষাব্যবস্থা, সড়কসহ বিভিন্ন ধরনের সুবিধা।শহরে করা হয়েছে চার লেনের রাস্তা।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৮ সালের ২৯ মার্চ ঠাকুরগাঁওয়ে এসে যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে গেছেন।আমরা আশা করি সেগুলো খুব তাড়াতাড়ি পূরণ হবে।

তিনি বলেন, ২০২৪ সালের নির্বাচন সামনে রেখে জেলা আওয়ামী লীগের সব অঙ্গসংগঠনকে ঢেলে সাজানো হয়েছে।সংগঠন আগের চেয়ে এখন অনেক শক্তিশালী।তাই বিএনপিসহ অন্যান্য দলগুলো আর মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারবে না।তাদের প্রতিহত করতে আওয়ামী লীগ সর্বদা সজাগ রয়েছে।করোনার সময় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা লীগসহ সব সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। আমরা এখন সাংগঠনিকভাবে সবাই একত্রিত হয়ে পরামর্শ করে কাজ করছি।জেলাবাসীর উন্নয়নে আরও কী করা যায়- তা নিয়ে আমরা আলোচনা করছি।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, আগামী নির্বাচনেও মানুষ উন্নয়নের কথা ভেবে আবার নৌকা মার্কাকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী করে শেখ হাসিনাকে চতুর্থবারের মতো ক্ষমতায় আনবে।এ জন্য তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা সাধারণ মানুষের পাশে থেকে কাজ করছে।তবেই মানুষ নৌকা মার্কায় আবার ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করবে।


প্রজন্মনিজ২৪/এ আর 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ