সিলেট জুড়ে দুই এমপিকে নিয়ে সমালোচনার ঝড়

প্রকাশিত: ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২ ০৫:২৯:৪৪

সিলেট জুড়ে দুই এমপিকে নিয়ে সমালোচনার ঝড়

আবুল কাশেম রুমন সিলেট প্রতিনিধিঃ সিলেট জুড়ে দুই এমপিকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠছে। হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে একটি অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সামনে তর্কে জড়িয়েছেন সাবেক ও বর্তমান সংসদ সদস্য। অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য আবু জাহিওেংষধস দেওয়া একটি বক্তব্যের প্রতিবাদ জানান সংরক্ষিত আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী। এ সময় দু’জনের অনুসারীদেও চেঁচামেচিতে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিবেশ। পরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে পরিবেশ শান্ত হয়।

শনিবার (৩ ডিসেম্বর) রাতে শায়েস্তাগঞ্জ থানার নতুন ভবন উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ থানার নতুন ভবন উদ্বোধন করা হয়। এ উপলক্ষে পুলিশের পক্ষ থেকে বিকেলে থানা চত্বরে সমাবেশের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। বিকেলের এ সমাবেশ সন্ধ্যারাত পর্যন্ত গড়ায়। এ সমাবেশে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আবু জাহিরের বক্তব্যের সময় উত্তাপ ছড়ায়।

বক্তব্যে আবু জাহির বলেন, ১৯৭৫ সালে যখন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়, সেই সময় হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন মানিক চেধুরী। তিনি বিএনপিতে যোগদানের জন্য আবেদন করেছিলেন। এমনকি তিনি পরবর্তী সময়ে লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচন করেন। ওই ধরনের সুবিধাবাদীরা এখনো কিন্তু ঘাপটি মেরে আওয়ামী লীগে আছে।

এ বক্তব্যের প্রতিবাদ জানান মঞ্চের সামনের আসনে থাকা সংরক্ষিত মহিলা আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী। তিনি মানিক চৌধুরীর মেয়ে। তিনি বাবাকে নিয়ে মিথ্যাচার করা হচ্ছে দাবি করে প্রতিবাদ জানান। এক পর্যায়ে দু’জনের তর্ক শুরু হলে পরিবেশ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

তর্কবিতর্ক দেখে অনেকটা হতবিহ্বল হয়ে পড়েন মঞ্চে থাকা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। পরে তিনি উঠে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মানিক চৌধুরী একজন মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। যে কারণে রাষ্ট্র তাঁকে স্বাধীনতা পদক দিয়ে সম্মান জানায়। ঘটে যাওয়া ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।


প্রজন্মনিউজ২৪/এ কে

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ