শিক্ষানুরাগী সোলায়মান হোসেন স্মরণে আলোচনা সভা

প্রকাশিত: ২৬ নভেম্বর, ২০২২ ০৩:০৭:০৪

শিক্ষানুরাগী সোলায়মান হোসেন স্মরণে আলোচনা সভা

যশোর প্রতিনিধিঃ যশোরের চৌগাছা উপজেলার জগন্নাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক সোলায়মান হোসেনের স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোলায়মান হোসেন ফাউন্ডেশন (প্রস্তাবিত) ও কবি এম আহমদ আলী সাহিত্যরতœ পরিষদ, নিউইয়র্কের আয়োজনে কয়ারপাড়া সরকারি প্রাথমিক প্রাঙ্গণে এ আলোচনা সভার অনুষ্ঠিত হয়।

১৯৫৮ সালের ৩১ মে উপজেলার কয়ারপাড়া খাদিজা বেগম ও আব্দুস সামাদ দম্পতির ঘরে জন্মগ্রহণ করেন। কৃষক ঘরে জন্ম নেওয়ায় পড়াশোনার পাশাপাশি বাবাকে কৃষিকাজে সাধ্যমতো সাহায্য করতেন তিনি। পড়াশোনার প্রতি তীব্র আগ্রহের কারণে তৎকালীন সমাজের বিভিন্ন ঘাত-প্রতিঘাত সহ্য করেও করেও কৃষক পিতা সন্তানকে শিক্ষিত করতে  স্কুলে ভর্তি করিয়ে দেন সোলায়মানকে। 

মেধাবী সোলায়মান অল্প দিনেই শিক্ষকদের প্রিয়পাত্র হয়ে ওঠেন। দেখতে দেখ প্রাথমিক পাশ করে মাধ্যমিকে পা দেন। ভর্তি হন চৌগাছা শাহাদাত পাইলট হাই স্কুলে। চৌগাছার বাতিঘর বলে খ্যাত শিক্ষক আলি আকবর ও শফীর সাহচর্যে শিক্ষা নিতে থাকেন। স্বাধীনতার পর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ফার্স্ট ডিভিশনে মাধ্যমিক উত্তীর্ণ হন সোলায়মান। ১৯৭৬ সালে কোটচাঁদপুর সরকারি কলেজ থেকে দ্বিতীয় বিভাগের এইচএসসি পাশ করেন। সে সময়ে দুই বছরেই ডিগ্রী কোর্স সম্পন্ন করার নিয়ম থাকায় ১৯৭৮ সালে যশোর সিটি কলেজ থেকে বিকম পাস করেন। 

বাবার স্বপ্ন পূরণের সোলায়মান ১৯৭৮-৭৯ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মার্কেটিং বিভাগে ভর্তি হন। তবে শারীরিক অসুস্থতার কারণে সেখানকার পড়াশোনা শেষ করতে পারেননি। ১৯৮১ সালের যশোরের খ্যাতিমান কবি, সাহিত্যিক ও সাংবাদিক এম আহমদ আলীর মেয়ে রওশন আরার সাথে পারিবারিকভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ১৯৮৩ সালে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয়ে শিক্ষকতা পেশায় আত্মনিয়োগ করেন। 

২০০৭ সালে শেষে স্বেচ্ছায় অবসর নেন এবং ২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে স্থায়ীভাবে আমেরিকায় পাড়ি জমান। আমেরিকায় অবস্থানের পাঁচ বছর পর ২০১৪ সালের ৭ নভেম্বর সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে স্মৃতিশক্তি হারান সোলায়মান হোসেন। দীর্ঘ পাঁচ বছর হাসপাতালের বিছানায় নিঃসঙ্গ সময় কাটিয়ে ২০১৯ সালের ৭ সেপ্টেম্বর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

মৃত্যুকালের তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলেসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। পিতার প্রতি ভালোবাসা এবং তার অসম্পূর্ণ মানবকল্যাণমূলক কাজকে সম্পন্ন করতে ও আর্তমানবতার কল্যাণে পিতার কাজের প্রচার ও প্রসারে তার ছেলে মঞ্জুর হাসান ও মামুন হাসান অক্লান্ত চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তাদের প্রচেষ্টাতেই তৈরি হয়েছে সোলায়মান হোসেন ফাউন্ডেশন, যেখান থেকে সুবিধা পাবে সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষেরা।

আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইরুফা সুলতানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. আব্দুস সালাম। উপস্থিত ছিলেন অর্থনীতিবিদ, যুক্তরাষ্ট্রের লং আইল্যান্ড ইউনিভার্সিটি অর্থ ও বাণিজ্য বিভাগের চেয়ারম্যান এম শওকত আলী, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মুস্তাফিজুর রহমান।


প্রজন্মনিউজ২৪/এ আর 
 

এ সম্পর্কিত খবর

ঝালকাঠিতে বিতর্কিত পাঠ্যক্রম বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন

র‌্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা রাজনৈতিক বিষয়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কার পেলেন রাবির দুই অধ্যাপক

এতিমের ক্যাপিটেশন গ্র্যান্ট প্রকল্পের অর্থ আত্মসাধের অভিযোগ    

পদ না থাকলে কেউ সালামও দেবে না : কাদের

তেজগাঁও কলেজ সাংবাদিক সমিতির পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন

বন্ধ বিদ্যালয়ের পাঠদান, শূন্যরেখার রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে

বিতর্কিত পাঠ্যক্রম বাতিলের দাবিতে ইসলামি ছাত্র আন্দোলনের মানববন্ধন

বিপিএলে ব্যাট হাতে দাপট দেখাচ্ছেন দেশি ক্রিকেটাররা

হিন্দুত্ববাদ ছড়াতে পাঠ্যপুস্তকে বিকৃত ইতিহাস উপস্থাপন 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ