'দ্রুত সংবাদ পৌঁছাতে অনলাইন গণমাধ্যমের বিকল্প নেই'

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১১:৪৩:১৭

'দ্রুত সংবাদ পৌঁছাতে অনলাইন গণমাধ্যমের বিকল্প নেই'

নিজস্ব প্রতিবেদক: অতি দ্রুততম সময়ে মানুষের দোরগোড়ায় যেকোনো সংবাদ পৌঁছে দিতে অনলাইন গণমাধ্যমের বিকল্প নেই। অনলাইন গণমাধ্যমের উৎকর্ষের গোড়ার দিকে অনেকে এই সংবাদ মাধ্যমকে হেয় প্রতিপন্ন করতো। এমনকি প্রিন্ট মিডিয়ার অনেক সাংবাদিক অনলাইন গণমাধ্যমের কর্মীদেরকে অবমূল্যায়ন করতেও দেখা গেছে। কিন্তু তারাই আজ অনলাইন গণমাধ্যমগুলোকে সার্বক্ষণিক অনুসরণ করে তথ্যে সমৃদ্ধ হচ্ছে। গেল এক যুগে অনলাইন গণমাধ্যমের এটি একটি বড় বিজয়। অনলাইন গণমাধ্যম আজ দুনিয়া জুড়ে সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য গণমাধ্যমে পরিণত হয়েছে। 

বুধবার সন্ধ্যায় উত্তরার একটি অভিজাত হোটেলে বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশনের দশম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে বক্তারা এসব কথা বলেন। 

অনুষ্ঠানে উত্তরা মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি কিংবদন্তি সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম বেদু প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, অনলাইন গণমাধ্যম সাংবাদিকতার সবগুলো চোখ খুলে দিয়েছে। মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করলেও তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া দেখানোর সুযোগ পান পাঠকরা। পাঠকদের সাথে অনলাইন গণমাধ্যমের সরাসরি সম্পর্ক। বিশ্বের যে কোন প্রান্তে ঘটে যাওয়া সংবাদ তাৎক্ষণিক জানতে সারা দুনিয়ার মানুষ এখন অনলাইন নির্ভর হয়ে পড়েছে। আমরা অনেক সময় ভুলেই যাই, সবশেষ কোন দিন প্রিন্ট পত্রিকা পড়েছি। অনলাইন পত্রিকা পড়েই আমরা সব সংবাদ একসঙ্গে জানতে পারছি। 

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শরিফুল ইসলাম খান বলেন, হাজারো ঘাত প্রতিঘাত উপেক্ষা করে বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশন ১১ তম বর্ষে পদার্পণ করেছে। সারাদেশের অনলাইন পত্রিকাগুলোর সম্পাদক ও প্রকাশকদের একমাত্র সংগঠন এটি। নানা ঘাত প্রতিঘাত মোকাবেলা করেই মালিকপক্ষের স্বার্থরক্ষা ও অনলাইন গণমাধ্যমের বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নিজেও বলেছেন প্রিন্ট গণমাধ্যমের দিন শেষ, আগামীর দিন শুধু অনলাইন গণমাধ্যমের। প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা আমাদেরকে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা দিয়েছে। এ সময় তিনি যেসব অনলাইন গণমাধ্যম নিবন্ধন পাওয়ার উপযুক্ত তাদেরকে দ্রুততম সময়ে নিবন্ধন দিতে সরকারের তথ্যমন্ত্রী ডঃ হাছান মাহমুদের প্রতি আহ্বান জানান। 

অনুষ্ঠানে সাংবাদিক লেখক সাহিত্যিক ও অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাহী সভাপতি সৌমিত্র দেব বলেন, আমরা অনলাইন গণমাধ্যমকে আগামী দিনের একমাত্র সম্ভাবনাময় গণমাধ্যম হিসেবে দেখছি। অনলাইন গণমাধ্যমের কোন বিকল্প নেই। একটা সময় মানুষ ভুলে যাবে অনলাইন গণমাধ্যমের বাইরে গোটা বিশ্বে আর কোন গণমাধ্যম ছিল। দুনিয়ার বড় বড় গণমাধ্যম তাদের অনলাইন ভার্সনকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। 
বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত স্বপনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শরিফুল ইসলাম খান, বক্তব্য রাখেন সহসভাপতি রাশেদুল হাসান বুলবুল, নাসির উদ্দিন বুলবুল, নির্বাহী সদস্য নাফিস মাহমুদ, সুমাইয়া জামান প্রমুখ। অনুষ্ঠানে কেক কেটে দশম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ, হুমায়ুন কবির, ইকবাল ভূঁইয়া, মাহফুজা ইসলা্‌ সাদিকুর রহমান নাঈম, কাজী ওয়াহিদুজ্জামান, কবি সাহিদা ইসলা্‌ আব্দুল্লাহ আল মোঃ জাহাঙ্গীর, আজিজুর রহমান, সোহাগ বিপ্লব, মাহবুব চৌধুরী, জেসমিন নুর প্রিয়াঙ্ক্‌ আজারুল ইসলাম মোল্লা, মমিনুল ইসলাম, মোহাম্মদ জামান,মিনহাজ উদ্দিন আক্তার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবাইকে ডিনার পরিবেশন করা হয়।


প্রজন্মনিউজ২৪/ইজা 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ