ইসরাইলে ছুরিকাঘাতে নিহত ৩

প্রকাশিত: ০৬ মে, ২০২২ ০৮:৫৯:৩৯

ইসরাইলে ছুরিকাঘাতে নিহত ৩

দখলদার ইসরায়েলে ছুরি হামলার ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৫ মে) দেশটির স্বাধীনতা দিবস উদযাপনকালে রাজধানী তেল আবিবের নিকটবর্তী শহর ইলাদে এক দুষ্কৃতিকারী এ হামলা চালায়। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও দুইজন। এ ঘটনাকে ‘সন্ত্রাসী হামলা’ হিসেবে দেখছে দেশটির পুলিশ।

১৯৪৮ সালে অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূমিতে জবরদস্তি ইসরায়েলি রাষ্ট্রের সৃষ্টি হয়। এরপর থেকে ৫ মে‘কে স্বাধীনতা দিবস পালন করে আসছে ইহুদিবাদী ইসরায়েল। ঘটনার দিন স্বাধীনতা দিবস পালন করছিল দেশটি। এদিন জাতীয় ছুটি ছিল। উদযাপন অনুষ্ঠানের মধ্যে এদিন ইলাদ শহরে হামলার ঘটনা ঘটে। শহরটিতে বসবাসকারী ৫০ হাজার মানুষের অধিকাংশই গোঁড়া ইহুদি।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে এ ঘটনাকে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে দেখছে তারা। পুলিশের ভাষ্য মতে, একটি এলাকার একাধিক জায়গায় ছুরি দিয়ে আক্রমণ চালানো হয়। হামলার পর গাড়িতে চেপে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতিকারী। এরপর পুলিশ ওই এলাকার সব রাস্তা বন্ধ করে দেয়। দুষ্কৃতীদের খোঁজে ব্যাপক তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

তবে স্থানীয় মিডিয়ার দাবি, হামলায় একাধিক ব্যক্তি অংশ নেয়। ছুরির পাশাপাশি তারা বন্দুকও ব্যবহার করে। পুলিশকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা ডিপিএ জানাচ্ছে, দুইজন আক্রমণকারী ছিল। একজন কুঠার ব্যবহার করে। ছুরিকাঘাতে নিহতদের সবার বয়স গড়ে ৪০ বছরের আশেপাশে।

ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লাপিদ বলেছেন, স্বাধীনতা দিবসের আনন্দ একটি ঘটনায় ব্যাহত হয়েছে। হত্যাকারীরা ইলাদে আক্রমণ করেছে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ইসরায়েলে একের পর এক সহিংস ঘটনা ঘটছে। 

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেছেন, ‘ইসরায়েলে একের পর এক সন্ত্রাসী হামলা হচ্ছে। বৃহস্পতিবারের ঘটনা তারই অঙ্গ বলে মনে হচ্ছে।’

ইসরায়েলের পুলিশ জানিয়েছে, মার্চের শেষ থেকে এখনো পর্যন্ত আইএসের সমর্থক ইসরায়েলি-আরবরা দুইটি আক্রমণের পেছনে আছে। দুইটি হামলার পেছনে আছে ফিলিস্তিনিরা, যারা ওয়েস্ট ব্যাংক থেকে আক্রমণ চালিয়েছে।

হামাসের মুখপাত্র বৃহস্পতিবার বলেছেন, ইসরায়েলের নিরাপত্তা বাহিনী আল আকসা মসজিদ চত্বরে যেভাবে ঢুকে পড়েছে, তারই প্রতিবাদে এ হামলা করা হয়েছে। 

প্রজন্ম নিউজ/নূর

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ