ঈদের নাটক নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটছে তারকাদের

প্রকাশিত: ৩১ মার্চ, ২০২২ ১২:২১:৩১

ঈদের নাটক নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটছে তারকাদের

বছর ঘুরে আবার আসছে আনন্দের উপলক্ষ্যে ঈদ। এ উপলক্ষ্যে সরব হয়ে উঠেছে বিনোদন অঙ্গন। বিশেষ করে ঈদের নাটক নির্মাণের জন্য সবাই ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন। বৃহত্তম এ উৎসবে বিনোদনপিয়াসী দর্শকের চাহিদা পূরণের জন্য বিনোদনের পসরা নিয়ে আসছে টিভি চ্যানেলগুলো। 

টিভির পাশাপাশি ইউটিউব চ্যানেল এবং অনলাইন প্ল্যাটফরমেও থাকছে ঈদের বিশেষ নাটক প্রচারের যজ্ঞ। তা ছাড়া করোনা পরিস্থিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রণে থাকায় আগামী ঈদে নতুন কাজের ছড়াছড়ি ঘটবে বলে অনুমান করছেন সংশ্লিষ্টরা। বাহারি গল্পে নিত্যনতুন ঢঙে নাটক নির্মাণের তোড়জোড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

গত মাস থেকেই ঈদের নাটক নির্মাণ শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে। নাটকের তারকা অভিনয় শিল্পীদের প্রায় সবাই ঈদের নাটকের কাজ নিয়ে ব্যস্ত হয়েছেন। সিনিয়র তারকাদের মধ্যে জাহিদ হাসান গত মাসেই ঈদের নাটকের কাজ শুরু করেছেন। অন্য প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের নাটকের পাশাপাশি নিজস্ব প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকেও একাধিক ঈদের নাটক নির্মাণ করবেন তিনি। 

সংখ্যায় কম হলেও এবারও তার অভিনীত নাটক আলোচনায় থাকবে বলে আশাবাদ এ তারকা অভিনয়শিল্পীর। এ প্রসঙ্গে জাহিদ হাসান বলেন, গত দুই বছরের ঈদগুলোতে করোনার প্রকোপ থাকায় সেভাবে নতুন কাজ করতে পারিনি। এবার সেই পরিস্থিতি নেই। তাই হয়তো কাজ একটু বেশি করতে পারব। চেষ্টা করছি যেন দর্শকদের ভালো গল্পের কাজের মাধ্যমে বিনোদিত করতে পারি। কারণ ঈদের সময় দর্শক নাটক দেখেন বেশি। সে বিষয়টি মাথায় রেখেই কর্মপরিকল্পনা সাজিয়েছি। 

একই রকম পরিকল্পনা অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীরও। তিনি মার্চের মধ্য ভাগ থেকে ঈদের নাটকে অভিনয় শুরু করেছেন। ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে নিয়মিত ঈদের নাটকের শুটিং করছেন এ অভিনেতা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ঈদ মানেই নতুন নাটকের সমাহার। নিত্যনতুন আনন্দদায়ক গল্প নিয়ে দর্শকদের আনন্দ দেওয়ার প্রচেষ্টা থাকে সবার। আমরা রাতদিন সমানতালে অভিনয় করি।

গত দুবছর করোনার কারণে সেই চিরচেনা পরিস্থিতি দেখিনি। তবে আগামী ইদের আগের পরিবেশটা সবার অনুকূলেই আছে। তাই প্রচুর কাজ হচ্ছে এবার। আমি নিজেও ইদের আগ পর্যন্ত অভিনয় করব। সব মিলিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে নাট্যাঙ্গনে। আমি চাই যেন করোনার কারণে আর আমাদের বসে থাকতে না হয়। 

নাটকের চলতি সময়ের শীর্ষ জনপ্রিয় অভিনেতা অপূর্ব কয়েক মাস বিদেশ ভ্রমণের পর দেশে ফিরেছেন গত মাসে। তিনিও আটঘাট বেঁধে ইদের নাটকের শুটিং শুরু করেছেন। এবার তাকে একখণ্ডের নাটকেই দেখা যাবে শুধু। এ প্রসঙ্গে অপূর্ব বলেন, ইদে দর্শকের প্রত্যাশা থাকে অনেক বেশি। তাই জেনে বুঝে অভিনয় করি। যদিও অন্য সময়গুলোতেও আমি সচেতনভাবেই গল্প ও চরিত্র পছন্দ করি। দর্শকের চাহিদার পাশাপাশি নিজের পছন্দের বিষয়টিকেও গুরুত্ব দিয়ে অভিনয় করি। এবারও ভালো গল্পের একাধিক নাটকে আমাকে দেখা যাবে। ইদের নাটকে অভিনয় করতে আমারও বেশ আনন্দ লাগে। আশা করছি সবার অংশগ্রহণে ইদের আনন্দ বর্ণিল হবে।  

এদিকে সিনিয়র অভিনেতাদের মধ্যে আবদুন নূর সজলও ইদের নাটকে অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত আছেন। ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে ইদের নাটকের শুটিং করছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, প্রতি ইদেই আমার অভিনীত নতুন নাটক টিভিতে প্রচার হয়। আগামী ইদও তার ব্যতিক্রম নয়। ইদের নাটকের অভিনয় আরও আগেই শুরু করেছি। এবারও আমার অভিনীত নাটকগুলোতে বৈচিত্র্য থাকবে। পাশাপাশি আমার চরিত্রগুলোতেও নতুনত্ব থাকবে। করোনার প্রকোপ থাকলেও গত দুবছরের ইদেও আমার একাধিক নতুন নাটক প্রচার হয়েছে। তখন সংক্রমণের ভয় নিয়ে কাজ করতে হয়েছে। এবার সেই ভয় কিছুটা কম। আশা করছি সবাই উৎসবমুখর পরিবেশেই সময়গুলো অতিক্রম করবেন।

বর্তমান সময়ের নাটকের শীর্ষ অভিনেত্রীদের মধ্যে মেহজাবিন অন্যতম একজন। তিনিও শামিল হয়েছেন ইদের নাটকের অভিনয়ে। নানা ধরনের চরিত্রে অভিনয় করে বারবার প্রশংসা কুড়িয়েছেন দর্শকের। এখন আর তাকে গড়পড়তা গল্পের নাটকে কাজ করতে দেখা যায় না। এ অভিনেত্রীও ইদের নাটকে অভিনয় শুরু করেছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মানসম্মত নাটকে অভিনয়ের চেষ্টা করি সব সময়। সেই ধারা অব্যাহত রেখেই ইদের নাটকে অভিনয় করছি। দর্শক যদি আমার অভিনীত ইদের নাটকগুলো পছন্দ করেন তবেই পরিশ্রম সার্থক হবে। 

বাবার মৃত্যুজনিত কারণে প্রায় দুই মাস অভিনয় থেকে দূরে ছিলেন নাট্যাভিনেত্রী তানজিন তিশা। সম্প্রতি অভিনয় শুরু করেছেন। ইদের এক গুচ্ছ নাটকে অভিনয়ের পরিকল্পনা সাজিয়েছেন তিনি। ইদের আগের সময় পর্যন্ত নাটকগুলোর শুটিং করবেন। এ প্রসঙ্গে তানজিন তিশা বলেন, দর্শকের ভালোবাসার কারণেই আমি আজকের অবস্থানে এসেছি। তাই তাদের জন্যই কাজে ফিরলাম। ইদের নাটকে অভিনয় করছি। আশা করছি কিছু ব্যতিক্রমী কাজের মাধ্যমে দর্শকদের সামনে আসতে। 

এ ছাড়া আরও কিছু তারকাও ইদের নাটকের অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। তারা হলেন ফারহান আহমেদ জোভান, আফরান নিশো, সাবিলা নূর, তৌসিফ মাহবুব, এফএস নাঈম, সাফা কবির, কেয়া পায়েল, নাদিয়া আহমেদ, ইরফান সাজ্জাদ, মৌসুমী হামিদ, আনিসুর রহমান মিলন প্রমুখ।


প্রজন্মনিউজ২৪/মুজাহিদ   
 
 
 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন