জাবি ছাত্রীদের কাছে ক্ষমা চাইলেন শাবিপ্রবি ভিসি 

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারী, ২০২২ ০৫:০০:১১

জাবি ছাত্রীদের কাছে ক্ষমা চাইলেন শাবিপ্রবি ভিসি 

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামকে মুঠোফোনে অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন তার মন্তব্যের জন্য দুঃখপ্রকাশ করেন বলে জনসংযোগ কার্যালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া অডিওটি এডিট করা বলেও দাবি করেছেন শাবিপ্রবি উপাচার্য।
 
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের কাছে মোবাইল ফোনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের সম্পর্কে মন্তব্যের জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখপ্রকাশ করে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন শাবিপ্রবি উপাচার্য।
 
অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন জানান, তার বক্তব্য সম্পাদনা (এডিট) করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হয়েছে। এতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। একই সাথে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং সংশ্লিষ্ট সকলেই আহত হয়েছেন। তিনি এ বিষয়টি অনুধাবন করছেন।
 
তিনি আশা প্রকাশ করেছেন যে, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উদার ও প্রগতিশীল শিক্ষার্থী ও শিক্ষকগণ তাকে ক্ষমা করে দেবেন।
 
এর আগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করার অভিযোগ অস্বীকার করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

তার নামে ছড়িয়ে পড়া অডিওটিকে ‘বোগাস’ আখ্যায়িত করে উপাচার্যের দাবি, এ ধরনের কোনো মন্তব্য তিনি করেননি।

শাবি উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে সোমবার থেকে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। এর মধ্যেই অডিও ক্লিপটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

শাবি উপাচার্যের কথিত অডিওতে তাকে বলতে শোনা যায়, ‘যারা এই ধরনের দাবি (ছাত্রী হলে রাত ১০টা পর্যন্ত ঢোকার অনুমতি) তুলেছে, যে বিশ্ববিদ্যালয় সারা রাত খোলা রাখতে হবে, এইটা একটা জঘন্য রকম দাবি। আমরা মুখ দেখাইতে পারতাম না। এখানে আমাদের ছাত্রনেতা বলছে যে, জাহাঙ্গীরনগরের মেয়েদের সহজে কেউ বউ হিসেবে চায় না।

‘কারণ সারা রাত এরা ঘোরাফেরা করে। বাট আমি চাই না যে আমাদের যারা এত ভালো ভালো স্টুডেন্ট, যারা এত সুন্দর, এত সুন্দর ডিপার্টমেন্টগুলো, বিখ্যাত সব শিক্ষক... তারা যাদের গ্র্যাজুয়েট করবে, এ রকম একটা কালিমা লেপুক তাদের মধ্যে।’

শাবি উপাচার্যের এ ধরনের মন্তব্যে তৈরি হয়েছে নতুন ক্ষোভ। এর প্রতিবাদে সরব হন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতিও এই বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দেয়।


প্রজন্মনিউজ২৪/সুইট

এ সম্পর্কিত খবর

তামিম-মুশফিকের বদলি নেইঃ বিসিভি সভাপতির কাছে

গাইবান্ধায় ছাত্রদল ও যুবদলের বিক্ষোভ সমাবেশ

লিভারপুল বনাম রিয়াল মাদ্রিদ: ইউরোপের ইতিহাসে একটি দর্শনীয় ফাইনাল

আইপিএল : দুই রয়্যালসের মেগা দ্বৈরথ দেখতে উদগ্রীব ক্রিকেট প্রেমিরা

ঢাবিতে লাশ ফেলার ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

১০ উইকেটের বিশাল ব্যাবধানে সিরিজ জিতল শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশে সার সংকট হতে পারে যুদ্ধের কারণে 

বিটার অরেঞ্জ ট্রি - বাড়ি থেকে অনেক দূরে একটি জীবন

'কোথাও নিরাপদ নয়': ইউক্রেনীয়রা রাশিয়ার আক্রমণের ভয়াবহতা বর্ণনা করেছে

'হামাসের ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর আঘাতে হতবাক হয়ে যাবে ইসরায়েল'

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ