বাসে হাফ নিয়ে আজ আবার অবরোধ, আবার বৈঠক

প্রকাশিত: ২৭ নভেম্বর, ২০২১ ১১:৫৭:৪৬

বাসে হাফ নিয়ে আজ আবার অবরোধ, আবার বৈঠক

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের জন্য ভাড়া অর্ধেক করার দাবিতে আজ আবারও রাস্তায় নামার কর্মসূচি আছে রাজধানীর বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের। এ অবস্থায় গতকাল শুক্রবার বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিসি) চালিত সব বাসে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ ভাড়া ঘোষণা করেছে সরকার। বেসরকারি বাসের মালিকরা এ বিষয়ে কী করবেন তা ঠিক করতে আজ আবারও বৈঠকে বসছেন বিআরটিএসহ মালিক, শ্রমিক সংগঠনের নেতারা।

আজও সড়ক অবরোধ : গত বৃহস্পতিবারের মতো আজও শিক্ষার্থীরা রাজধানীর সায়েন্স ল্যাব, ফার্মগেট, আসাদগেট, রামপুরা ব্রিজ, যাত্রাবাড়ী ও উত্তরা এলাকায় সড়ক অবরোধ করবে বলে জানিয়েছে। সাধারণ শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনের সঙ্গে আছে নিরাপদ সড়ক আন্দোলন (নিসআ)। ১৬ নভেম্বর থেকে শিক্ষার্থীরা রাজধানীতে হাফ ভাড়ার দাবিতে আন্দোলন করছে। গত বৃহস্পতিবার শহরের আটটি মোড়ে একযোগে অবরোধ করে ছাত্ররা।

নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল্লাহ মেহেদি বলেন, ‘হাফ পাস বাস্তবায়ন নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব। সড়ক বিভাগের সচিব আমাদের বলেছেন, সাত দিনের মধ্যে হাফ পাস বাস্তবায়ন হবে। সোমবারের মধ্যে বাসে ছাত্রদের  কাছ থেকে অর্ধেক ভাড়া নেওয়া না হলে মঙ্গলবার বিআরটিএর কার্যালয় ঘেরাও করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে।’

বিআরটিসিতে হাফ ভাড়া : গতকাল শুক্রবার সড়ক পরিবহন ও সেতু  মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সারা দেশে সব বিআরটিসি বাসে ছাত্রদের কাছ থেকে অর্ধেক ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন। বিআরটিসি দ্রুত এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করবে বলেও জানান তিনি। আগামী বুধবার ১ ডিসেম্বর থেকে তা কার্যকর হবে।

গতকাল শুক্রবার ওবায়দুল কাদের তাঁর বাসভবনে সাংবাদিকদের বলেন, ‘বাসে ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ইস্যুকৃত ছবিযুক্ত বৈধ পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে এবং প্রয়োজনে প্রদর্শন করতে হবে। সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা বিআরটিসি বাসে চলাচলের ক্ষেত্রে এ সুবিধা পাবে। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের দিন অর্ধেক ভাড়া প্রযোজ্য হবে না।

বেসরকারি বাসে অর্ধেক ভাড়া নেওয়া প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘আগামীকাল (আজ) বিআরটিএতে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক ফেডারেশনের নেতাসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে সভা অনুষ্ঠিত হবে। আশা করি সামাজিক দায়বদ্ধতা এবং শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি সংবেদনশীল থেকে পরিবহন মালিকরা ইতিবাচক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন। 

আজ আবার বৈঠক : হাফ ভাড়া ঠিক করা নিয়ে আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় আবার বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কার্যালয়ে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। গত বৃহস্পতিবারের বৈঠক শেষে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম জানিয়েছেন, হাফ পাসের বিষয়ে বাস মালিকদের কাছ থেকে প্রস্তাব চাওয়া হয়েছে। এক সপ্তাহের মধ্যে তাঁরা এই প্রস্তাব দেবেন।

তবে বাস মালিকদের সংগঠন ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ গতকাল বলেন, ‘এ ধরনের কোনো কিছু আমার জানা নেই। আমাদের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের প্রস্তাব দেওয়া হবে না। প্রস্তাব দিলে সরকার দেবে। আগামীকালের (আজ) বৈঠকেও আমাদের কোনো প্রস্তাব থাকছে না। আলোচনা যা হবে সেটা মিটিংয়ে বসেই হবে।

তবে বিআরটিএর একটি সূত্র আভাস দিয়েছে, বাস মালিকরা সরকারের কাছে ভর্তুকি চাইতে পারেন। অথবা তাঁরা বাসের যন্ত্রাংশ, জ্বালানি, বিআরটিএর নেওয়া বিভিন্ন খাতের ফি কমানোর কথা বলতে পারেন। আবার নগদ প্রণোদনাও চাইতে পারেন। যদিও ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সূত্র বলছে, বাস মালিকদের দিক থেকে ভর্তুকির বিষয়টি তোলা হবে না। কারণ, ভর্তুকি পেতে গেলে যে ধরনের কম্প্লায়েন্স থাকা দরকার তা বাসগুলোর নেই। তাই ভর্তুকির প্রস্তাব এলে সেটা সরকারের দিক থেকে আসতে হবে। কাঠামোও তারাই তৈরি করবে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সদ্য নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক হোসেন মো. মজুমদার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘প্রচলিত আইনে ছাত্রদের হাফ পাস দেওয়ার সুযোগ নেই। তা ছাড়া এখন সব কিছুর ব্যয় যেভাবে বেড়েছে, তাতে মালিকরা কিভাবে লাখ লাখ ছাত্রের অর্ধেক ভাড়ায় যাতায়াতের ব্যবস্থা করবেন?

বৈঠকে যদি বিআরটিএ থেকে আইন সংশোধনের কথা ওঠে তখন কী করবেন, জানতে চাইলে হোসেন মো. মজুমদার বলেন, ‘এমন পরিস্থিতি তৈরি হলে তখন নতুন করে আলোচনা হবে।

প্রজন্মনিউজ২৪/আল-নোমান

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ