সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনের প্রতিবাদে বশেমুরবিপ্রবিতে মানববন্ধন 

প্রকাশিত: ২১ অক্টোবর, ২০২১ ০৪:৩৭:০১ || পরিবর্তিত: ২১ অক্টোবর, ২০২১ ০৪:৩৭:০১

সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনের প্রতিবাদে বশেমুরবিপ্রবিতে মানববন্ধন 

জহরুল ইসলাম, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি: দেশের বিভিন্ন স্থানে সংখ্যালঘু হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের উপর চলমান হত্যা, উপাসনালয় ও বাড়িঘরে আগুন এবং নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) রংপুর বিভাগীয় ছাত্র সংগঠন।

আজ বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর ) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে রংপুর বিভাগীয় ছাত্র সংগঠন ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বলেন, বঙ্গবন্ধু ৭২ এর সংবিধান অনুযায়ী দেশকে অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র ঘোষণা করেছিলেন। সংবিধান অনুযায়ী প্রত্যেকে তার নিজের ধর্ম স্বাধীন ভাবে পালন করতে পারবে। কিন্তু সাম্প্রতিক দেশের বিভিন্ন স্থানে সংখ্যালঘুদের উপর অন্যায়ভাবে অত্যাচার ও সহিংসতার ঘটনা ঘটছে। যার কোন সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার হয়নি।

তারা আরও বলেন, আমরা সংখ্যালঘুদের উপর হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। এসকল ঘটনার তদন্তপূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করি এবং শান্তিময় বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জোর দাবি জানাই। 

কুমিল্লায় মন্দিরে কুরআন শরীফ রাখার ঘটনায় কৃষি বিভাগের শিক্ষক আরিফুল ইসলাম বলেন, যে এটা রেখেছে, অন্যায় করেছে। এটার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে বিচার পাওয়া সম্ভব ছিল। কিন্ত এটাকে কেন্দ্র করে অন্য সম্প্রদায়ের মানুষের উপর যে সহিংসতা চালানো হয়েছে তা কোন ভাবেই গ্রহনযোগ্য নই।

পরিশেষে তারা বলেন, আজকের এ মানববন্ধনে আমরা দাবি জানাই যারা সাধারণ কর্মজীবী মানুষের উপর অত্যাচার করেছে তাদের বিচারের আওতায় আনা হোক এবং দেশে এই বিচার একটি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকুক। যাতে ভবিষ্যতে কেউ সম্প্রীতি নষ্ট করার সাহস দেখাতে না পারে। সেই সাথে যারা ইসলামকে কলুষিত করবে তাদের কেও বিচারের আওতায় এনে যেন দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দেওয়া হয়। যাতে ভবিষ্যতে আর এমন কর্মকাণ্ড সংঘটিত না হয়।

প্রজন্মনিউজ২৪/এন হাসান

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ