মক্কা-মদিনায় যেতে হলে অবশ্যই টিকা নিতে হবে

প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর, ২০২১ ০১:৪৯:২৫

মক্কা-মদিনায় যেতে হলে অবশ্যই টিকা নিতে হবে

প্রজন্মনিউজ ডেস্ক: পবিত্র মসজিদুল হারামে গমন, ওমরাহ পালন ও মসজিদে নববির জিয়ারত করতে হলে অবশ্যই টিকার উভয় ডোজ গ্রহণ করতে হবে। সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় বিষয়টি বাধ্যতামূলক করেছে।

আরব নিউজে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রবিবার (১০ অক্টোবর) থেকে করোনা টিকা ছাড়া মক্কা ও মদিনার পবিত্র দুই মসজিদে প্রবেশ করা যাবে না।

রবিবার (১০ অক্টোবর) ভোর ছয়টা থেকে নতুন নির্দেশনা অনুসারে শুধু করোনা টিকার উভয় ডোজ নেওয়া মুসল্লিরা ওমরাহ, নামাজ ও জিয়ারতের অনুমোদন পাবেন। সৌদির হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানা গেছে।

যারা ওমরাহ বা নামাজের বুকিং দিয়েছেন, কিন্তু টিকার উভোয় ডোজ এখনো গ্রহণ করেননি নির্ধারিত সময়ের ৪৮ ঘণ্টা আগে তাদের টিকা ডোজ পরিপূর্ণ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও জানা গেছে, টিকা গ্রহণের বিষয়টি ‘তাওয়াক্কালনা’ অ্যাপের সাহায্যে প্রমাণিত হতে হবে।

সৌদির করোনা টিকার কেন্দ্রগুলোতে প্রতিদিন টিকা দেওয়া হচ্ছে। এখন পর্যন্ত ৪৩.১ মিলিয়নেরও বেশি করোনা টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে। সৌদির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় করোনার চার টিকার অনুমোদন দেয়। তা হলো- অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, ফাইজার-বায়োএনটেক, জনসন অ্যান্ড জনসন ও মডার্না। এদিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, সিনোফার্ম বা সিনোভ্যাকের টিকা নিলে তাদের বুস্টার ডোজ নিতে হবে।

গত বছর ৪ জানুয়ারি কভিড-১৯ মহামারি সংক্রমণরোধে ওমরাহ পালন স্থগিত করা হয়। এরপর প্রায় ১০ মাস পর পুনরায় ওমরাহ চালু হয়। আর দীর্ঘ ১৮ মাস বিদেশি ওমরাহ যাত্রীদের আগমন সাময়িক স্থগিত থাকে। এর পর গত ১৫ আগস্ট থেকে শুধুমাত্র টিকা নেওয়া বিদেশি মুসল্লিদের সৌদি আগমন শুরু হয়। বর্তমানে প্রতিদিন দেশি-বিদেশি প্রায় এক লাখ মুসল্লি ওমরাহ পালন করছেন।
এর আগে ২০২০ সালে করোনা মহামারির কারণে আধুনিককালের সবচেয়ে কম সংখ্যক মুসল্লি নিয়ে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হয়। সেই বছর সৌদিতে অবস্থানরত মাত্র ১০ হাজার মুসল্লি হজ পালন করেন। ২০২১ সালে সৌদিতে অবস্থানরত মাত্র ৬০ হাজার মুসল্লি কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে পবিত্র হজ পালনে অংশ নেন।

প্রজন্মনিউজ২৪/ইমরান হোসাইন

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন