ক্রেতা সঙ্কটে ১০ মিউচ্যুয়াল ফান্ড

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১২:১১:০৮

ক্রেতা সঙ্কটে ১০ মিউচ্যুয়াল ফান্ড

প্রজন্মনিউজ ডেস্কঃ আকর্ষণীয় লভ্যাংশ ঘোষণার পরও রেকর্ড ডেটের পর রেস ম্যানেজমেন্ট পরিচালিত ১০টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ক্রেতা সঙ্কট দেখা দিয়েছে।

এ ১০ মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে রয়েছে- ফার্স্ট জনতা ব্যাংক মিউচ্যুয়াল ফান্ড, ইবিএল ফার্স্ট, ইবিএল এনআরবি, এবি ব্যাংক ফার্স্ট, পপুলার লাইফ ফার্স্ট, ট্রাস্ট ব্যাংক ফার্স্ট, পিএইচপি ফার্স্ট, আইএফআইসি ফার্স্ট, এক্সিম ব্যাংক ফার্স্ট এবং ফার্স্ট বাংলাদেশ ফিক্সড ফান্ড।


সবগুলো ফান্ডের লভ্যাংশ পাওয়ার যোগ্য বিনিয়োগকারী নির্ধারণে রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয় ১৬ সেপ্টেম্বর। রেকর্ড ডেটের পর রোববারই (১৯ সেপ্টেম্বর) ফান্ডগুলোর প্রথম লেনদেন শুরু হয়েছে।

এদিন লেনদেনের শুরুতেই ফান্ডগুলোর দাম কমতে থাকে। দেখতে দেখতে দিনের দাম কমার সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছে যায় সবগুলো ফান্ড। এরপরও ৮টি ফান্ডের ক্রয় আদেশের ঘর খালি পড়ে রয়েছে।

 জনতা ব্যাংক-
এ ফান্ড ইউনিট হোল্ডারদের ১৩ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৯ টাকা ৭০ পয়সা। এখন তা কমে ৮ টাকা ৮০ পয়সায় নেমে গেছে।

ইবিএল -
এই ফান্ড ইউনিট হোল্ডারদের ১৩ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৯ টাকা ৯০ পয়সা। এখন তা কমে ৯ টাকায় নেমে গেছে।


ইবিএল এনআরবি-
এ ফান্ড ইউনিটহোল্ডারদের ৬ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৭ টাকা ২০ পয়সা। এখন তা কমে ৬ টাকা ৮০ পয়সায় নেমে গেছে।

এবি ব্যাংক -
এ ফান্ড ইউনিট হোল্ডারদের ৮ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৭ টাকা ১০ পয়সা। এখন তা কমে ৬ টাকা ৪০ পয়সায় নেমে গেছে।

পপুলার লাইফ -
এ ফান্ড ইউনিট হোল্ডারদের সাড়ে ৮ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৭ টাকা। এখন তা কমে ৬ টাকা ৩০ পয়সায় নেমে গেছে।

ট্রাস্ট ব্যাংক -
এ ফান্ড ইউনিট হোল্ডারদের ৯ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৭ টাকা ৪০ পয়সা। এখন তা কমে ৬ টাকা ৭০ পয়সায় নেমে গেছে।

পিএইচপি-
এ ফান্ড ইউনিট হোল্ডারদের সাড়ে ৮ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৭ টাকা ২০ পয়সা। এখন তা কমে ৬ টাকা ৫০ পয়সায় নেমে গেছে।

আইএফআইসি -
এ ফান্ড ইউনিট হোল্ডারদের সাড়ে ৭ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৭ টাকা। এখন তা কমে ৬ টাকা ৪০ পয়সায় নেমে গেছে।

এক্সিম ব্যাংক -
এ ফান্ড ইউনিট হোল্ডারদের সাড়ে ৭ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৭ টাকা ৯০ পয়সা। এখন তা কমে ৭ টাকা ২০ পয়সায় নেমে গেছে।

 বাংলাদেশ ফিক্সড ফান্ড-
এ ফান্ড ইউনিট হোল্ডারদের ৪ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। রেকর্ড ডেটের আগে ফান্ডটির দাম ছিল ৬ টাকা ২০ পয়সা। এখন তা কমে ৫ টাকা ৮০ পয়সায় নেমে গেছে।

   


প্রজন্মনিউজ২৪/নজরুল

এ সম্পর্কিত খবর

ব্যবসায়ীকে তুলে নিয়ে সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিলেন কাদের মির্জা

তুরস্কের ড্রোন পাচ্ছে এশিয়ার যেসব মুসলিম দেশ

ব্যবসায়ীকে আটকে রেখে সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেন কাদের মির্জা

সন্দ্বীপে মেয়াদোত্তীর্ণ গ্যাস সিলিন্ডার খোলার সাথে সাথেই অগ্নিকাণ্ড

উন্নত দেশ হওয়ার স্বপ্নে সড়ক পরিবহনের প্রস্তুতি কতটুকু?

কোটালীপাড়ায় 'বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী' বই পড়া প্রতিযোগিতা

কক্সবাজারে আটক ইকবালকে কুমিল্লা পুলিশের কাছে হস্তান্তর

প্রধান অভিযুক্ত আটক, তৃতীয় পক্ষকে সন্দেহ

মাংস খাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ

কোয়ারেন্টাইন ছাড়াই থাইল্যান্ডে ভ্রমণের সুযোগ

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ