একরামের  অপরাজনীতির  কাছে আত্মসমর্পণ করেছে রাঙ্গা- কাদের মির্জা

প্রকাশিত: ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৪:০৬:৪০ || পরিবর্তিত: ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৪:০৬:৪০

একরামের  অপরাজনীতির  কাছে আত্মসমর্পণ করেছে রাঙ্গা- কাদের মির্জা

নোয়াখালী প্রতিনিধি: জাতীয় সংসদের চতুর্দশ অধিবেশনের সমাপনী দিনে বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গার দেওয়া কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো.সাইফুল ইসলাম স্বপনকে নির্যাতনের বক্তব্যকে মিথ্যাচার আখ্যায়িত করে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেন,মশিউর রহমান রাঙ্গা সাহেব কি জন্য বায়াস্ট হলেন? আমি বুঝলাম না। তিনি একজন বিজ্ঞ রাজনীবিদ,প্রধানমন্ত্রীর সৌজন্যে তিনি প্রতিমন্ত্রীও হয়েছেন। আপনার মত একজন জাতীয় ব্যক্তিত্ব কথা বলার আগে সত্য বিষয়টা জানা উচিত ছিল। জাতীয় সংসদের মত একটি পবিত্র জায়গায় আপনি মিথ্যাচার করেছেন। মশিউর রহমান রাঙ্গা সাহেব একরামের মত অপরাজনীতির হোতার কাছে আপনি আত্মসমর্পণ করেছেন। কষ্ট হয়,কষ্ট হয়।  আমি আজকে বলব আপনাকে না, আপনাদের নেতা জিএম কাদেরের উদ্দেশ্যে। এ সময় কাদের মির্জা জিএম কাদেরের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে লাইভে এসে তিনি এসব কথা বলেন।
 
মেয়র বলেন, আহত জাপা নেতা স্বপন একটা লম্পট। যে ছেলে আমাদের নেতার সাথে নমিনেশন নিয়েছে। এ ছেলের নামও কেউ জানেনা। আমাদের নেতার সাথে নমিনেশন নিয়ে প্রায় ৫-৭ লাখ টাকা আমার থেকে ভোটের আগে নিয়েছে। ভোটের দিন আওয়ামীলীগের অফিসে বসে ওবায়দুল কাদেরের থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা নিয়েছে। সে টাকা নিয়ে কত কেলেংকারী এ ছেলে করেছে। তাদেরকে আপনার পিছনে লেলিয়ে দিয়েছে কারা রাঙ্গা সাহেব খবর নেন। আমি আজকে জিএম কাদের সাহেবের কাছে বলব বিষয়টা আপনি সত্যতা যাচাই করেন। যদি আমি অপরাধ করে থাকি তাহলে বিচার করেন। অন্যথায় যারা এ মিথ্যাচার করেছে। যারা জাতীয় সংসদের মত পবিত্র স্থানে দাঁড়িয়ে একথা গুলো বলেছে। যারা এটার সাথে জড়িত নোয়াখালীতে আমার বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছে আপনাদের দলের একটা অংশ। জিএম কাদের সাহেব আমি তাদের বিচার আপনার কাছে চাই। আপনি আমার বিষয় তদন্ত করে যদি আমার বিরুদ্ধে কোনো তথ্য পান তাহলে আমার দলের কাছে রিপোর্ট করুন। দল আমার বিরুদ্ধে যে ব্যবস্থা নিবে তা আমি মাথা পেতে নেব।

কাদের মির্জা বলেন,মন্ত্রী কি জন্য আজকে আমাকে অপ্রচন্দ করে? উনার অপ্রচন্দটা এক জায়গায়। অনেককে গালিগালাজও করছে।  তোরা কেন আব্দুল কাদের মির্জাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করাইলি। তার স্ত্রীও গালাগাল করছে। এটার জন্য কষ্ট আজকে আপনার। আরেকটা কষ্ট সকলের। আমি ভোট চুরির বিরুদ্ধে কথা বলেছি। কিন্তু আমি তো প্রথম শ্রেণির পৌরসভার মেয়র। আমার প্রধানমন্ত্রীর কাছে যেতে কি কারো সাহায্য লাগে।

তিনি আরও বলেন, আজকে আমার আত্মীয়রা আমার সাথে নেই। মন্ত্রীর বউ আমার সাথে নেই। পুলিশ প্রশাসনও আমার সাথে নেই। মন্ত্রী আমার সাথে যে ওয়াদা দিয়েছিল তা একটাও রক্ষা করে নাই। আমি অনেক চেষ্টা করে টাকা পয়সা খরচ করে আমার তিনটা ছেলেকে জামিন করিয়েছিলাম, তা মন্ত্রীর ওয়াইফের ইশারায় তাদের জামিন স্থগিত করা হয়েছে। এই এসপি ও ওসি পুলিশ লাইনে ছিল। লাইন থেকে তাদেরকে এখানে পাঠানো হয়েছে। এরা আজকে এ এলাকায় তাণ্ডব চালাচ্ছে। লাইনে কারা থাকে, যারা অযোগ্য, অদক্ষ অফিসার তারাই লাইনে থাকে। পিবিআই-এসপিসহ আমার ছেলেদেরকে মুজাক্কির হত্যার মামলার শোন অ্যারেস্ট দেখাচ্ছে। 
প্রজন্মনিউজ২৪/আল-নোমান 
 
 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ