বিসিবির কোচ নিয়োগ পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মাশরাফি

প্রকাশিত: ০৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৯:৫৮:৩৯ || পরিবর্তিত: ০৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৯:৫৮:৩৯

বিসিবির কোচ নিয়োগ পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মাশরাফি

প্রজন্মনিউজ ডেস্কঃ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ সরব হয়েছেন তিনি। 
 
নিউজিল্যান্ড সিরিজে উইকেট কিপিং করবেন কে? অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহীম নাকি দুর্দান্ত ফর্মে থাকা নুরুল হাসান সোহান? সমাধান দিয়েছিলেন রাসেল ডমিঙ্গো। বাংলাদেশের প্রধান কোচের ‘ভাগাভাগি’ সমাধানটা মোটেও পছন্দ হয়নি সাবেক এই অধিনায়কের। তিনি সমালোচনা করেন ডমিঙ্গোর এমন সিদ্ধান্তের।

এরপর উইকেট কিপিংকেই বিদায় জানালেন মুশফিক। এবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) উপরই চটেছেন মাশরাফি। প্রশ্ন তুললেন কোচ নিয়োগের প্রক্রিয়া নিয়ে।

বাংলাদেশের ক্রিকেটে বিদেশি কোচদের প্রাধান্য দেয়ার সংস্কৃতিটা বেশ পুরনো। এখন পর্যন্ত টাইগারদের দায়িত্ব নেয়ার সুযোগ হয়নি কোনো দেশি কোচের। অল্প ক’জন ভারপ্রাপ্ত হিসেবে কিছুদিনের জন্য দায়িত্ব পালন করেছেন।
বিদেশি কোচদের নিয়ে কোনো আপত্তি নেই মাশরাফির।


 
তবে তাদের বাংলাদেশের ক্রিকেট সংস্কৃতি এবং ক্রিকেটারদের নিয়ে বুঝতে পারার সক্ষমতা থাকা জরুরি বলে মনে করেন তিনি।

মাশরাফির প্রশ্ন, কোচ নিয়োগের আগে দেখা হয় তার প্রোফাইল কতটা সমৃদ্ধ। অভিজ্ঞতা কেমন। দলকে কোন পথে কোথায় নিতে চান তিনি। কিন্তু বাংলাদেশের ক্রিকেট ও ক্রিকেটারদের সম্পর্কে জানার গভীরতা, এদেশের ক্রিকেট সংস্কৃতি জানা আছে কিনা, এসব কতটা দেখা হয়?

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যক্তিগত ফেসবুক পেজে মাশরাফি লিখেছেন, ‘একটা কোচ যখন নিয়োগ দেওয়া হয় তার প্রসেস আসলে কি থাকে সেটা জানার খুব ইচ্ছে আমার। এ যাবত কালে প্রায় ৯-১০ জন কোচের সাথে কাজ করেছি। আমি যতটুকু দেখেছি প্রত্যেকটা কোচ তার নিজের মতো করে কাজ শুরু করে, যেটা করাটাও স্বাভাবিক। কারণ এক এক জনের কাজের ধরণ এক এক রকম।’


 
মাশরাফি আরও লিখেছেন, ‘কিন্তু সব সময় দেখেছি প্রত্যেকটি কোচ তার নিজস্ব একজন বা দুইজন প্রিয় খেলোয়াড় বানিয়ে নেয়, যা পরে সিলেক্টর, ক্যাপ্টেন বা অন্যকেউ তাকে আর কিছুই বুঝাতে পারে না, বরং সম্পর্ক গুলো জটিল হতে থাকে আর ঐ পছন্দের জন্য সে আবার দুইজনকে এমন অপছন্দ করা শুরু করে যে তাদের আর দেখতেই পারেনা। এক পর্যায়ে এমন জিদ শুরু করে যে প্রয়োজনে চাকরি ছেড়ে দিব, এমন কথা প্রকাশ্যেও শুনেছি কয়েকবার কোচের মুখে।’

কোচ নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কোথায় ভুল করে বসে বোর্ড, সেটিও তুলে ধরেন মাশরাফি। বলেন, ‘কোচ নিয়োগের সময় যে নতুন কোচের ইন্টারভিউ নেওয়া হয় সেখানে আসলে তাকে কি প্রশ্ন করা হয়? বা আদৌ কি করা হয় কোন প্রশ্ন? নাকি শুধু জানতে চাওয়া হয় তোমার কি করার ইচ্ছা? হয়তো তখন সে কিছু পয়েন্ট তুলে ধরে ওখান থেকে নতুনত্ব কিছু পেলে চিন্তা করে দারুণ কোচ কি সুন্দর প্ল্যান, এর মতো কোচই হয়না।’

সাবেক এই অধিনায়ক আরও বলেন, ‘আমার তো মনে হয় ভুল ওখানেই হয়ে যায় কারণ আমরা মানুষকে বোঝাতে সব সময় হাইপ্রোফাইল কোচ খুঁজি যা পরে আর কোন কাজে আসে না। আমাদের প্রয়োজন আমাদের ক্রিকেট যে ফলো করে বা আমাদের  ম্যাক্সিম্যাম খেলোয়াড়দেরকে নিয়ে স্টাডি করে এসে ইন্টারভিউ দিচ্ছে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আমাদের সংস্কৃতি সম্পর্কে ন্যুনতম ধারণা নিয়ে আসা। তা না হলে -ও তো বুঝবেই না একজন সাকিব, তামিম, মুশফিক, রিয়াদ তৈরি করতে কতো দিন লেগেছে। বা অতীতে তাদের অবদান কি। একজন মোস্তাফিজ কিভাবে উঠে এসেছে। বার বার বলেছি আবার ও বলছি দলের আগে কখনোই কোন খেলোয়াড় হতে পারেনা, ভালো না করলে বাদ পড়তেই হবে।’

 

প্রজন্মনিউজ২৪/নজরুল

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ