ফেরি বন্ধ তবুও পারাপারের অপেক্ষায় বাড়ছে মানুষের ঢল

প্রকাশিত: ০৯ মে, ২০২১ ০২:৫২:১৮ || পরিবর্তিত: ০৯ মে, ২০২১ ০২:৫২:১৮

ফেরি বন্ধ তবুও পারাপারের অপেক্ষায় বাড়ছে মানুষের ঢল

আবারো বন্ধ হয়ে গেছে ফেরি চলাচল। আজ রোববার (০৯ মে) সকাল সাড়ে ৭টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ হওয়ার ফলে পারাপারের অপেক্ষায় আটকা পড়েছেন হাজার হাজার মানুষ। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রী ও যানবাহনের চাপ বাড়ছে।

ঘরমুখী হাজার হাজার যাত্রী সকাল থেকেই ঘাট এলাকায় ভিড় করে। এ ছাড়া প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাসসহ ছোট গাড়িরও চাপ পড়ে ফেরিঘাটে। পরে যাত্রীদের ভোগান্তি বিবেচনা করে ফেরি ছাড়া হয়। তবে কেউ স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। এমনকি করোনা মহামারীর শঙ্কাও নেই মানুষের মধ্যে। পরিস্থিতি সামলাতে ফেরিঘাটে মোতায়েন করা হয়েছে বিজিবি।

এদিকে মানুষের গ্রামে ফেরার তীব্র আকাক্সক্ষা পুঁজি করে নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও কৌশলে বিভিন্ন রুটে চলছে দূরপাল্লার বাস। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে লকডাউনের মধ্যে দূরপাল্লার বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তবে এর মধ্যেও লুকিয়ে টিকিট বিক্রি করে উত্তর কিংবা দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের দিকে ছেড়ে যাচ্ছে বিভিন্ন কোম্পানির বাস। ঢাকা থেকে বেশির ভাগ এলাকার দূরপাল্লার বাস চলে গাবতলী থেকে। গতকাল দুপুরে গাবতলী বাস টার্মিনালে গিয়ে দেখা যায় বেশির ভাগ কাউন্টার বন্ধ। তবে আশপাশে ঘুরছেন টিকিট বিক্রেতারা।

মাওয়া ঘাট থেকে জানা যায়, ভোর থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। ঘাটে পারাপারের জন্য হাজার হাজার যাত্রী জড়ো হয়েছে। তবে যাত্রী গতকালের চেয়ে আজ কম। এ মুহূর্তে সাড়ে ৩ শতাধিক মালবাহী ট্রাক, পিকআপ ঘাটে রয়েছে।

শিমুলিয়া ঘাট থেকে জানা যায়, ভোর থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। যখন কোন অ্যাম্বুল্যান্স আসবে তখন ফেরি ছাড়া হবে। তাছাড়া ঘাট থেকে কোন ফেরি ছাড়ার সিদ্ধান্ত হয়নি।

প্রজন্মনিউজ২৪/শাওন

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন