ভাল্লুকের কামড়ে আহত উপজাতি বৃদ্ধ

হেলিকপ্টারে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নিল সেনাবাহিনী ও বিমানবাহিনী

প্রকাশিত: ১৪ মার্চ, ২০২১ ০৪:৫২:৩৯

হেলিকপ্টারে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নিল সেনাবাহিনী ও বিমানবাহিনী

বান্দরবান জেলায় ভাল্লুকের কামড়ে আহত একজন উপজাতি বৃদ্ধকে চিকিৎসা দিতে সেনাবাহিনী ও বিমানবাহিনীর যৌথ উদ্যোগে হেলিকপ্টার যোগে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাঁসপাতালে নিয়েছে।

আজ ১৪ মার্চ রবিবার বেলা সকাল সাড়ে সাতটায় বান্দরবান জেলার সমথংপাড়া এলাকায় ভাল্লুকের থাবায় গুরুতর আহত হয়। আহত ব্যক্তি মৃত্যু পথযাত্রী ত্রইল মুরং (৬৬) কে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সাহায্যে তাৎক্ষনিক বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টারের মাধ্যমে প্রথমে চট্টগ্রাম সেনানিবাসে নিয়ে আসা হয়। পরবর্তিতে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় ।

আহত ত্রইল মুরং (৬৬) র এলাকার কারবারীর কাছ থেকে জানা যায়, সমথং পাড়া জঙ্গলের পাশে ঝিড়ির কাছে ত্রইল মুরং পানি আনতে যান এবং হঠাৎ একটি হিংস্র ভাল্লুক আক্রমন করে ঐ বৃদ্ধকে। ভাল্লুকটি ত্রইল মুরংকে মারাত্মকভাবে আহত করে। পরবর্তীতে আহত ত্রইল মুরংকে বান্দরবান রিজিয়নের আওতায় নিকটস্থ বলাইপাড়া আর্মি ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হয়। চট্টগ্রাম সেনানিবাসের  জিওসি  মহোদয় তৎক্ষণাৎ আহত ত্রইল মুরং কে যেকোনো ভাবে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম সেনানিবাসে নিয়ে আসার নির্দেশ দেন।

সেই নির্দেশ পেয়েই দুপুর দেড়টার দিকে বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টার যোগে চট্টগ্রাম সেনানিবাসে তাকে আনা হয়। পরবর্তীতে তাকে সেনাবাহিনীর সহায়তায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য যে, ইতিপূর্বেও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও বাংলাদেশ বিমানবাহিনী যৌথ প্রচেষ্টায় গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ মঙ্গলিয় মুরং (০৬) ও দাদা ইয়াংসাই (৪৮) নামে দুইজন মৃত্যুপথযাত্রী উপজাতিকে হেলিকপ্টার যোগে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা সেবা ও উন্নর চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম ম্যাডিকেল কলেজে স্থানান্তর করা হয়। আর্তমানবতার সেবায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এই অগ্রযাত্রা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়।

 

প্রজন্মনিউজ২৪/নুর

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ