২২ জেলের কারাদণ্ড

ভোলায় জাটকা সংরক্ষণে অভিযান

প্রকাশিত: ০২ মার্চ, ২০২১ ১০:১৫:২৪

ভোলায় জাটকা সংরক্ষণে অভিযান

ভোলায় জাটকা সংরক্ষণে অভিযান চালানো অব্যাহত রেখেছে স্থানীয় প্রশাসন ও মৎস্য বিভাগ। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় জাটকা ধরার দায়ে জেলায় ২২ জেলেকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবু আবদুল্লাহ খান ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এই আদেশ দেন। 

জেলা সদরসহ উপজেলায় ৭টি টিম এ অভিযান পরিচালনা করছেন। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা জানিয়েছেন, 'ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষে চলমান এ অভিযান সফল করতে স্থানীয় প্রশাসন সহ মৎস্য বিভাগ সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যাতে জেলেরা নদীতে নামতে না পারে সেজন্য তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। এদিকে কোস্ট গার্ডের সিনিয়র অফিসারদের নেতৃত্বে অভিযান চলছে মেঘনা নদীতে।'

১ মার্চ রাতে তুলাতুলি এলাকার মেঘনা নদীতে জেলা মৎস্য কর্মকর্তার নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে ৫ জেলেকে আটক করে আইন শৃঙ্খলারক্ষা বাহিনী। জব্দ করা হয়েছে ৩০ হাজার মিটার জাল, একটি ট্রলার ও ১ হাজার কেজি ইলিশ। ইলিশ। জালগুলো নদীর পাড়েই আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। জব্দ করা ট্রলারটি ৪৬ হাজার ৫শ টাকায় নিলামে বিক্রি করা হয়েছে।
অভিযানে আটক ৫ জনকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবু আবদুল্লাহ খানের ভ্রাম্যমান আদালত ১ বছর করে কারাদণ্ড দেন। 

এছাড়াও, চরফ্যাশনের বিভিন্ন স্থান থেকে জাটকা ধরা অবস্থায় ১৭ জেলেকে আটক করা হয়। ধরার কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রলার, ১০ হাজার মিটার জাল ও ১ মে. টন জাটকা জব্দ করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যম আটক ১৭ জনকে ১ মাস করে জেল দেয়া হয়। জালগুলো আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয় এবং ইলিশ এতিমখানায় বিতরণ করা হয়েছে।

প্রজন্মনিউজ২৪/লিংকন

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ