মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন ডা. আক্তার হোসেন

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারী, ২০২১ ১১:৫১:১৯

মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন ডা. আক্তার হোসেন

সিলেট প্রতিনিধি(হাফিজুল ইসলাম লস্কর): মহামান্য হাইকোর্টের রায়ে "বাংলাদেশ বোর্ড অব ইউনানী অ্যান্ড আয়ুর্বেদিক সিস্টেমস্ অব মেডিসিন"-এর সদস্য নির্বাচনে সিলেট বিভাগ হতে ইউনানী সদস্য পদপ্রার্থীর প্রার্থীতা ফিরে পেলেন ডা. আক্তার হোসেন।

বাংলাদেশ বোর্ড অব ইউনানী অ্যান্ড  আয়ুর্বেদিক সিস্টেমস্ অব মেডিসিন"-এর সদস্য নির্বাচনের প্রার্থীতা ফিরে পেতে ডা. আক্তার হোসেন হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেন,রীট নং ৭১৫/২০২১। পরে বুধবার (২০ জানুয়ারী) মহামান্য হাইকোর্টের একটি বেঞ্চের বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো: কামরুল হোসাইন মোল্লা এ রায় ঘোষণা করেন। ডা. আক্তার হোসেনের পক্ষে রিট আবেদন শুনানী করেন এড. সৈয়দ ফজলে এলাহী অভি।

উল্লেখ্য, ডা.আক্তার হোসেন ২২'ডিসেম্বর ২০২০ "বাংলাদেশ বোর্ড অব ইউনানী অ্যান্ড আয়ুর্বেদিক সিস্টেমস অব মেডিসিন"-এর সদস্য নির্বাচনে সিলেট বিভাগ হতে ইউনানী সদস্যের নমিনেশন সংগ্রহ করেন এবং ২৭'ডিসেম্বর ২০২০ মনোয়নপত্র দাখিল করেন। পরে ইলেকশান অফিসার মনোয়নপত্র বাছাই কালে প্রতিদ্ধন্ধী প্রার্থী মনোয়ার হোসেন সোহেলের এক অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিজ্ঞতা ৯ দিন কম হওয়ায় মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষনা করেন। পরে প্রার্থী ডা.আক্তার হোসেন আপিল করলে আপিল কর্মকর্তা সাবেক রেলমন্ত্রী মো: মুজিবুল হক এম.পি মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা না করায় আক্তার হোসেন আদালতের স্বরনাপন্ন হলে হাইকোর্ট তার মনোয়নপত্র বৈধ বলে রায় দিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহনের নির্দেশ দেন।

এ প্রসঙ্গে ডা.আক্তার হোসেন বলেন, ‘নির্বাচন কর্মকর্তা ও আপিল কর্মকর্তার আদেশ চ্যালেঞ্জ করে আমি উচ্চ আদালতে রিট করেছিলাম। উচ্চ আদালতের একটি দ্বৈত বেঞ্চের বিচারকরা আমার প্রার্থিতা ফিরিয়ে দিয়েছেন। এখন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আমার আর কোনও বাধা নেই।’

প্রজন্মনিউজ২৪/সাইফুল

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন