আজ শপথ নেবেন জো বাইডেন

প্রকাশিত: ২০ জানুয়ারী, ২০২১ ০৯:৫৭:২৭

আজ শপথ নেবেন জো বাইডেন

অনেক জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসাবে আজ শপথ নেবেন জো বাইডেন। নজিরবিহীন নিরাপত্তার মধ্যেমে ওয়াশিংটনে শপথ অনুষ্ঠানের সব আয়োজন ইতিমধ্যেই সম্পন্ন করা হয়েছে।

আজ (বুধবার) বেলা ১১টায় (বাংলাদেশ সময় বুধবার রাত ১০টা) শপথ অনুষ্ঠিত হবে। বাইডেনের পর ভাইস-প্রেসিডেন্ট হিসাবে কমলা হ্যারিস শপথ নেবেন। হোয়াইট হাউজ থেকে শপথ অনুষ্ঠান বিভিন্ন গণমাধ্যম সরাসরি সম্প্রচার করবে। শপথ অনুষ্ঠানে সম্ভাব্য অভ্যন্তরীণ হামলা এড়াতে ওয়াশিংটনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। খবর বিবিসি, সিএনএন, এএফপি ও রয়টার্সের।

আর্মি সেক্রেটারি রায়ান ম্যাকার্থি বলেছেন, ওয়াশিংটনের বেশিরভাগ রাস্তা এবং মেট্রো স্টেশনগুলোর পাশাপাশি কর্তৃপক্ষ জাতীয় উদ্যান হিসাবে পরিচিত ন্যাশনাল মল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ভার্জিনিয়া রাজ্য থেকে শহরে প্রবেশের সেতুগুলোও বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। সহিংসতার হাত থেকে রক্ষায় হাজার হাজার ন্যাশনাল গার্ড সদস্য এবং আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কর্মকর্তারা শপথ এলাকাজুড়ে অবস্থান করছেন। তীব্র নিরাপত্তা উদ্বেগ থাকা সত্ত্বেও বাইডেন অনুষ্ঠানটি ঐতিহ্যবাহী স্থানে করার পরিকল্পনা নিয়েছেন।

আসন্ন বাইডেন প্রশাসনের সম্ভাব্য যোগাযোগ পরিচালক কেইট বেডিংফিল্ড এবিসির ‘দিস উইক শো’তে বলেন, আমাদের পরিকল্পনা ও প্রত্যাশা, নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট বাইডেন ২০ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলের পশ্চিম পাশে বাইরের দিকে পরিবারের সঙ্গে বাইবেলে হাত রেখে শপথ অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

তিনি জানান, বাইডেন এবং তার দলের যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর প্রতি পূর্ণ আস্থা আছে। তারা অনেক সময় ধরে অভিষেক অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা নিরাপদ কিনা তা নিশ্চিত করার পরিকল্পনায় কাজ করে যাচ্ছেন। তবে নানা কারণে বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে মাত্র ২০০ অতিথি উপস্থিত থাকবেন। অবশ্য ট্রাম্পের অভিষেক অনুষ্ঠানে ২ লাখ অতিথি অংশ নিয়েছিলেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের ১৬০ বছরের মার্কিন ঐতিহ্য উপেক্ষা করে ঘোষণা দিয়েছেন, তিনি অভিষেক অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন না। তবে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে। ট্রাম্প বুধবার সকালে একটি বিদায়ী লালগালিচা সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ওয়াশিংটন ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন। এরপর প্রেসিডেন্টের বিমান এয়ারফোর্স ওয়ানে চড়ে তিনি ফ্লোরিডার উদ্দেশে যাত্রা করবেন।

জানা যায়, শপথ নেওয়ার পরপরই নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সপরিবারে হোয়াইট হাউজে উঠবেন। এদিন জাতির উদ্দেশে তিনি ভাষণ দেবেন। শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টায় (বাংলাদেশ সময়) হোয়াইট হাউজ থেকে বাইডেন-হ্যারিসকে নিয়ে ভার্চুয়াল প্যারেড ও সম্প্রচার মাধ্যমগুলো সরাসরি অনুষ্ঠান সম্প্রচার করবে।

এদিকে, সিনেট থেকে পদত্যাগ করেছেন কমলা হ্যারিস। বাইডেনের শপথের ৪ ঘণ্টা আগে হোয়াইট হাউজ থেকে বিদায় নেবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। মেরিল্যান্ড সামরিক ঘাঁটিতে তার বিদায় অনুষ্ঠান হবে।

বাইডেনের এক মুখপাত্র জানান, ট্রাম্পের ডিক্রি মানবেন না বাইডেন: করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে ব্রিটেন, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের বেশিরভাগ এবং ব্রাজিলের বিরুদ্ধে দেওয়া ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা ২৬ জানুয়ারি প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু এর বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন জো বাইডেন।

তিনি বলেন, সোমবার হোয়াইট হাউজ এক ডিক্রি জারি করেছে। এতে বলা হয়, ওইসব দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে ২৬ জানুয়ারি। বাইডেনের মুখপাত্র জেন পসাকি টুইটারে জানান, এখন ভ্রমণবিষয়ক নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার সময় নয়। মার্চে ইউরোপের বেশিরভাগ দেশের বিরুদ্ধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। মে মাসে একই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয় ব্রাজিলের ওপর।

জেন পসাকি টুইটা বার্তায় জানান, করোনা সংক্রমণ আরও ছড়িয়ে পড়া রোধে আমরা আন্তর্জাতিক সফরের ক্ষেত্রে জনস্বাস্থ্য বিষয়ক ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করার পরিকল্পনা নিয়েছি। এখন বিশ্বে অধিক সংক্রমণ ক্ষমতাসম্পন্ন করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। এর ফলে আন্তর্জাতিক সফরের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ তুলে নেওয়ার এখনই সময় নয়।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার ক্ষমতার মেয়াদকালের সর্বনিু জনসমর্থন নিয়ে এ সপ্তাহে হোয়াইট হাউজ ত্যাগ করতে যাচ্ছেন। মাত্র ৩৪ শতাংশ আমেরিকান নাগরিকের সমর্থন নিয়ে তিনি তার দায়িত্ব শেষ করছেন। সোমবার গ্যালাপের একটি জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। এক প্রতিবেদনে জানা যায়, ট্রাম্পের মেয়াদকালে তার গড় জনসমর্থন ছিল ৪১ শতাংশ। এ সমর্থন তার পূর্বসূরি যে কোনো প্রেসিডেন্টের চেয়ে ৪ পয়েন্ট কম। আগের জরিপে ট্রাম্পের শাসনের প্রতি ৩৫ শতাংশ মার্কিন নাগরিককে সমর্থন জানাতে দেখা গেছে।

উল্লেখ্য, ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট মেয়াদকালের সর্বশেষ জরিপ ৭ থেকে ১১ জানুয়ারি চালানো হয়। আর এ জরিপে মার্কিন নির্বাচনে জো বাইডেনের বিজয়ের ফলাফল উল্টে দিতে ট্রাম্পের সমর্থকদের চেষ্টার অংশ হিসাবে মার্কিন ক্যাপিটল ভবনে হামলার নেতিবাচক প্রতিফলন দেখা যায়।

সিনেট থেকে পদত্যাগ করলেন কমলা হ্যারিস: যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম নারী ও কৃষ্ণাঙ্গ ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস সিনেট থেকে পদত্যাগ করেছেন। স্থানীয় সময় সোমবার তিনি পদত্যাগ করেন। ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসাবে শপথ নিতে ২ দিন আগে তিনি পদত্যাগ করলেন। পদত্যাগের পর এক খোলা চিঠিতে ক্যালিফোর্নিয়ার নাগরিকদের উদ্দেশে কমলা লিখেছেন, আপনাদের সিনেটর হিসাবে কাজ করা সম্মানের বিষয় ছিল। এটা শেষ নয়, এটা শুরু। সিনেটের সভাপতি হিসাবে শপথ নেওয়ার প্রস্তুতি নিতে আমি সিনেট থেকে পদত্যাগ করছি।

হ্যারিস পদত্যাগ করার ফলে ডেমোক্র্যাটিক সিনেটর চাক শুমার সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠদের নেতা হবেন। এদিকে, ৬ বছর পর আবারও সিনেটের নিয়ন্ত্রণ ফিরেছে ডেমোক্র্যাটদের হাতে। ১০০ আসনের সিনেটে দুই দলেরই আসন ৫০-৫০। তবে টাই ব্রেকিং ভোট দেওয়ার ক্ষমতা ডেমোক্র্যাট ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলার হাতে থাকায় সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠ মূলত ডেমোক্র্যাটরাই। সিনেটে হ্যারিসের স্থানে এসেছেন ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের সেক্রেটারি অ্যালেক্স প্যাডিলা। তিনি ক্যালিফোর্নিয়া থেকে আসা প্রথম ল্যাটিন বংশোদ্ভূত সিনেটর।#

প্রজন্মনিউজ২৪/ফাহাদ

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ