মুসলিমদের যে অ্যাপ ব্যবহারের অনুরোধ করলো তুরস্ক

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারী, ২০২১ ০২:৪৮:২১ || পরিবর্তিত: ১৪ জানুয়ারী, ২০২১ ০২:৪৮:২১

মুসলিমদের যে অ্যাপ ব্যবহারের অনুরোধ করলো তুরস্ক

মার্কিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হোয়াটস অ্যাপের বিকল্প হিসেবে নতুন অ্যাপ উদ্ভাবন করেছে তুরস্ক।তুরস্কের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কোম্পানী তুর্কসেলের উদ্ভাবিত নতুন এ অ্যাপের নাম ‘বিপ’।ম্যাসেজিং, ভয়েস এবং এইচডি কোয়ালিটির ভিডিও কলের সুবিধা সম্পন্ন এ অ্যাপটি হোয়াটস অ্যাপ-ইমুর চাইতেও নিরাপদ বলে মনে করেছেন তুর্কি আইটি বিশেষজ্ঞরা।


অ্যাপটির গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে ইতোমধ্যে তুর্কী প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান মার্কিন নিয়ন্ত্রণাধীন হোয়াটস অ্যাপ তুরস্কের সকল রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানে ব্যবহার নিষিদ্ধ করে ‘বিপ’ ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছেন। সেইসাথে হোয়াটস অ্যাপের বদলি হিসেবে তুর্কী নাগরিকদের পাশাপাশি বিশ্বের মুসলিমদের তুরস্কের নতুন এ অ্যাপ ব্যবহারের অনুরোধ করেছেন।


 তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে,তুরস্কের নতুন এ অ্যাপ উদ্ভাবনের পিছনে রয়েছে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের নতুন স্ট্র্যাটেজি। এর কারণ হিসেবে তারা সামনে এনেছেন আমেরিকার বর্তমান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এহেন পরিণতি!


তাদের মতে, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মেয়াদ শেষ হবে ২০ জানুয়ারী। কিন্ত তার আগেই তাকে ফেসবুক, গুগল, টুইটার, হোয়াটস অ্যাপ এককথায় পুরো বৈশ্বিক যোগাযোগ ব্যবস্থা থেকে ব্যান করা হয়েছে।


 যেহেতু এসব প্রতিষ্ঠান খোদ আমেরিকার প্রেসিডেন্টের কথা না শোনে অজানা এক ডার্ক এনার্জির কথা শুনে তাই ঐ ডার্ক এনার্জিকেই আসল মালিক মনে করে খোদ প্রেসিডেন্টকেই গৃহবন্দী করে ফেলছে। ফলে যুদ্ধ বা ভয়াবহ মূহূর্তে আশংকা আছে ঐ ডাক এনার্জির মালিকানাধীন এসব যোগাযোগ মাধ্যম তুরস্কের বিরুদ্ধে কাজ করবে। সেইসাথে জরুরি মূহূর্তে অথবা গোপনীয় বার্তা আদান-প্রদানের মূহূর্তে হয় তা ফাঁস করে দিবে নতুবা পুরো একাউন্ট নষ্ট করে দিবে।


এই ভয় থেকে আগাম প্রস্তুতি হিসেবে এরদোয়ান মূলত মার্কিন যোগাযোগ মাধ্যমের বিকল্প তৈরী করতে চাইছে। যাতে বিপদ বা জরুরী মূহূর্তে কোনো সমস্যায় তুরস্ককে পড়তে না হয়।


তবে কারণ যাই হোক না কেনো তুরস্কের এ অ্যাপ যে ইতোমধ্যে সারা বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।যার প্রমাণ গুগুল প্লে স্টোরে আসার অল্প কয়েকদিনেই ৫০ মিলিয়নের ও অধিক গ্রাহক ডাউনলোড করেছে এ অ্যাপটি।ইমু সহ অন্য সামাজিক মাধ্যমগুলোর মতো অশ্লীল বিজ্ঞাপনের বিড়ম্বনা না থাকায় অ্যাপটির ব্যবহারকারীরাও সস্তি পাচ্ছেন।


তুর্কসেল কর্মকর্তাদের মতে, যদি তুরস্ক ‘বিপ’ অ্যাপে সফল হয়, তাহলে আস্তে আস্তে গুগল, ফেসবুকের বিপরীত প্ল্যাটফর্মগুলো ও তুরস্ক তৈরী করবে।

অ্যাপটির ডাউনলোড লিংক (https://play.google.com/store/apps/details...)।


প্রজন্মনিউজ২৪/আব্বাস আলী খান

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ