ঋতুকন্যা হেমন্ত

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর, ২০২০ ১১:৩৫:৫৭

ঋতুকন্যা হেমন্ত

সাইফুল ইসলাম, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়: অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য,লীলাভূমি আরা ঋতুবৈচিত্র্যে ভরপুর আমাদের বাংলাদেশ। এদেশে রয়েছে ছয়টি ঋতু। প্রতিটি ঋতুর রয়েছে নিজস্ব বৈশিষ্ট্য। প্রতিটি ঋতু পালাবদলক্রমে  আবির্ভাব হয় নতুন বৈচিত্র্যে।

এদেশের বারোমাসে গ্রীষ্ম,বর্ষা,শরৎ,হেমন্ত,শীত ও বসন্ত এই ছয়টি ঋতুর দুই মাস অন্তরন্তর আগমন হয়। যার মধ্যে হেমন্ত আসে তার নবরূপে। এসময় বাংলার ঘরে ঘরে শুরু ফসল কাটার আমেজ। ফসল কাটাকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠে নবান্ন উৎসব। এই উৎসব অগ্রহায়ণ মাসে নতুন ধান পাকার পর অনুষ্ঠিত হয়।

হেমন্তের আগমনে বাংলার প্রকৃতি আবচ্ছায়ায় আচ্ছাদিত। এখন ভোর হতেই চোখে পড়ে কুয়াশার চাদর মোড়ানো সকাল।রাতে খোলা আকাশে অজস্র তারার আনাগোনা। কেড়ে নেয় আবেগি মনের আবেগাপ্লুত ভালোবাসা। ঋতুকন্যা হেমন্তের প্রতিনিয়ত এসব বৈশিষ্ট্য আন্দোলিত করে মানুষের মনকে।পাকা ধানের আমেজে চারপাশে বেষ্টিত হয় মিষ্টি মধুর ধানের গন্ধ।কৃষিনির্ভর বাংলার পথে পথে হেমন্ত আনন্দ-বেদনার কাবোর মতো। প্রকৃতির আবেগ মেশানো হয় ছয় ঋতুর মধ্যে হেমন্ত আসে তার অনাবিল মাধুর্য নিয়ে।হেমন্তকে বলা হয় ঋতুকন্যা।

ঋতুকন্যা হেমন্তের অনাবিল মাধুর্যে মুখরিত হয় কৃষকের দল।ঋতুকন্যা হেমন্ত কবির কবিতায় নিয় আসে নতুন ধারা। ঋতুকন্যা হেমন্ত শুধু কি দৃশ্যের অমায়িক সৌন্দর্য নিয়ে ব্যস্ত? শুধু তাই নয়,ঋতুকন্যা হেমন্ত গন্ধের, শস্যের,আলস্য-পূর্ণতা ও বিষাদের করুণাময়ী। ইউরোপে ১লা সেপ্টেমবর থেকে হেমন্তের শুরু হলেও বাংলাদেশে তা হয় ব্যতিক্রম।

বাংলার পথে পথে হেমন্তের আগমনী বার্তা শুরু হয় অক্টোবরের দিকে।সেখানে একে বলা হয় বৈচিত্র্যময় রঙ ও  পাতা করার ঋতু। হেমন্ত ঋতুতে প্রকৃতির সব উদ্ভিদ আপন মহিমায় ন্যাড়া হয়ে যায়।অপেক্ষার প্রহর গুণে কবে তার হারিয়ে ফেলা রুপ ফিরে পাবে।
  
সাইফুল ইসলাম, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ












ব্রেকিং নিউজ