ধর্ষণের অপরাধে সালিশ কেন অবৈধ নয়?

প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর, ২০২০ ১০:১৪:৩৯ || পরিবর্তিত: ২২ অক্টোবর, ২০২০ ১০:১৪:৩৯

ধর্ষণের অপরাধে সালিশ কেন অবৈধ নয়?

প্রজন্মনিউজ ডেস্ক : ধর্ষণের অপরাধে সালিশ করা কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ধর্ষণের মামলা ১৮০ কার্যদিবসে বিরতিহীনভাবে নিষ্পত্তি করার বিষয়ে হাইকোর্টের যে নির্দেশনা আছে, তা বাস্তবায়ন হচ্ছে কিনা, সে বিষয়ে তিন মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে সংশ্লিষ্টদের বলেছে আদালত। এদিকে রাজধানীর কাঁঠালবাগানে সুপ্রীমকোর্টের আইনজীবী আসিফ ইমতিয়াজ খান জিসাদ হত্যা মামলায় আসামি স্ত্রী সাবরিনা শহীদ নিশিতাসহ চারজনকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। অন্যদিকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত প্রকল্পের একটি ভবনের জন্য অস্বাভাবিক দামে আসবাব ও অন্য সামগ্রী ক্রয়-সংক্রান্ত দুর্নীতির এক মামলায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মজিদ সন্স কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসিফ হোসেনের জামিন মঞ্জুর করেছে হাইকোর্ট। বুধবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চগুলো এ আদেশ প্রদান করেছে।

ধর্ষণের অপরাধে সালিশ করা কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। বিচারপতি মোঃ মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মহিউদ্দিন শামীমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। একইসঙ্গে এ বিষয়ে হাইকোর্টে চলমান অন্যান্য মামলা সম্পর্কে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ইয়াদিয়া জামান। তার সঙ্গে ছিলেন মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের রিটকারী আইনজীবী শাহিনুজ্জামান শাহিন। এর আগে গত ২০ অক্টোবর ধর্ষণের অপরাধে সালিশ করাকে ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে গণ্য করার নির্দেশনা চেয়ে রিট দায়ের করা হয়। এছাড়া রিট আবেদনে ধর্ষণের মামলা ১৮০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি, বিচার শুরুর পর থেকে নিষ্পত্তি না হওয়া পযন্ত একটানা বিচার চলার বিধান ও আদেশ কার্যকর করার নির্দেশনা চাওয়া হয়। মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের পক্ষে এ্যাডভোকেট শাহিনুজ্জামান শাহিন এ রিট দায়ের করেন।

জিসাদ হত্যা ॥ চারজনকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ : রাজধানীর কাঁঠালবাগানে এক ভবনের নয়তলার বারান্দা থেকে পড়ে সুপ্রীমকোর্টের আইনজীবী আসিফ ইমতিয়াজ খান জিসাদ হত্যা মামলায় আসামি স্ত্রী সাবরিনা শহীদ নিশিতাসহ চারজনকে ১৫ নবেম্বরের মধ্যে ঢাকা মেট্রোপলিটন দায়রা আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। মামলার অন্য আসামিরা হলেন- আসিফ ইমতিয়াজের শ্বশুর এ এস এম শহিদুল্লাহ মজুমদার, শাশুড়ি রাশেদা শহীদ ও শ্যালক সায়মান শহীদ নিশাত। আসামিদের আত্মসমর্পণের পর দায়রা আদালত তাদের জামিনের বিষয়ে মামলার গুরুত্ব বিবেচনা করে জামিন আবেদন নিষ্পত্তি করারও নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তাদের পক্ষে করা আগাম জামিনের আবেদনের শুনানি নিয়ে বুধবার বিচারপতি মোঃ হাবিবুল গনি ও বিচারপতি মোঃ রিয়াজ উদ্দিন খানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন (মানিক) ও ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল বি এম আবদুর রাফেল। আসিফের বাবা আইনজীবী শহীদুল ইসলাম খানও শুনানি করেন। অন্যদিকে, আসামি পক্ষে শুনানি করেন মোঃ ওজি উল্লাহ।

এক মামলায় ঠিকাদার আসিফের জামিন ॥ রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত প্রকল্পের একটি ভবনের জন্য অস্বাভাবিক দামে আসবাব ও অন্য সামগ্রী ক্রয়-সংক্রান্ত দুর্নীতির এক মামলায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মজিদ সন্স কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসিফ হোসেনের জামিন মঞ্জুর করেছে হাইকোর্ট। বিচারপতি মোঃ নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। আদালতে আসিফের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী ফিদা এম কামাল। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

আইনজীবী মোঃ খুরশীদ আলম খান জানান, পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত প্রকল্পের একটি ভবনের জন্য অস্বাভাবিক দামে আসবাব ও অন্য সামগ্রী ক্রয় সংক্রান্ত দুর্নীতির এক মামলায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মজিদ সন্স কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসিফ হোসেনের দুই মামলার মধ্যে একটি জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট। আমরা এ জামিনাদেশের বিরুদ্ধে আপীল বিভাগে আবেদন করব। আরেকটিতে আমরা সময় নিয়েছি। আজ বৃহস্পতিবার সেটির শুনানি হবে।


প্রজন্মনিউজ/শেখ নিপ্পন

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ












ব্রেকিং নিউজ