পাবনায় বিএনপির দু’দলের সংঘর্ষে আহত ৮

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১০:৪৭:৩৮

ঈশ্বরদীতে উপনির্বাচন উপলক্ষে ঢাকা থেকে আসা কেন্দ্রীয় নেতাদের পাশে বসাকে কেন্দ্র করে জেলা বিএনপির দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ৮ নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। এদর মধ্যে ৪ জন ছুরিকাহত হন।

 সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে ঈশ্বরদীর সাহাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে সন্ধ্যার আগে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় সাদ্দাম হোসেন, সাব্বির হোসেন ও আজমল হোসেন রানাকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়। এ ঘটনায় আহত আরও ৪ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

বিএনপির দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ছুরিকাহতরা হলেন, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক হিমেল রানা (৪৫), জেলা ছাত্রদলের সাংগাঠনিক সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন (২৪), সহ সাংগাঠনিক সম্পাদক সাব্বির হোসেন (২২) এবং জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক আজমল হোসেন রানা (২৭)।

ঈশ্বরদীতে পথসভা ও গণসংযোগ শেষে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ হাবিবুর রহমান হাবিবের গ্রামের বাড়ি সাহাপুরের বাসভবনে যান। এ সময় নেতাদের সঙ্গেই ছিলেন পাবনা জেলা বিএনপি, যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতৃবৃন্দ। বিকেল ৪টার দিকে খাবার দেয়ার সময় কেন্দ্রীয় নেতাদের পাশে বা সাথে বসা নিয়ে পাবনা থেকে আসা জেলা বিএনপির দু’টি গ্রুপ প্রথমে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। পরে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। এ ঘটনায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাসীর উদ্দীন এ ঘটনা সম্পর্কে সোমবার সন্ধ্যায় বলেন, শহরে পুলিশ মোতায়েন ও বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। এ ঘটনায় কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি তবে শহরের পরিস্থিতি এখন শান্ত।
প্রজন্মনিউজ২৪/জহুরুল

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ