ঘোড়াঘাটে ভুয়া চিকিৎসক দিয়ে চলা অনুমোদনবিহীন রীন নার্সিং হোম সীলগালা

প্রকাশিত: ১১ অগাস্ট, ২০২০ ১২:০৫:০৯

আবু সাঈদ রনিঃ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে কোনো রকম অনুমোদন ছাড়াই অবৈধভাবে নানাবিধ রোগের চিকিৎসাসেবা দিয়ে আসছিলো রীন নার্সিং হোম।পৌরসভার আজাদ মোড় এলাকায় অবস্থিত ক্লিনিকটিরে ভুয়া চিকিৎসক দিয়েই চিকিৎসা সেবা প্রদানেরও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার (১০আগস্ট) দুপুরে ক্লিনিকটিতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ ওয়াহিদা খানম। এসময় কোন বৈধ কাগজপত্র না থাকায় ক্লিনিকটি সিলগালা করে দেন।পাশাপাশি কোনো রকম সনদপত্র না থাকলেও নামের আগে ডা. ব্যবহার করে চিকিৎসা সেবা দেওয়া সৈয়দা রিমা আক্তার (২৪) নামের এক নারীকে এক মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

 

আটক হওয়া ভুয়া চিকিৎসক পার্শ্ববর্তী গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সৈয়দ নুরুল ইসলামের মেয়ে বলে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, গত কয়েকদিন আগে থেকে ভুয়া চিকিৎসক রিমা আক্তার এবং তার স্বামী ডাক্তার পি কে শাহীন ঘোড়াঘাট আজাদ মোড়ে একটি ৫ তলা ভবনের ৩য় ও ৪র্থ তলা ভাড়া নিয়ে কোনো রকম অনুমোদন ছাড়াই অবৈধভাবে রিন নার্সিং হোম পরিচালনা করে আসছিলো। সাধারণ চিকিৎসা সেবা দেওয়ার পাশাপাশি গর্ভবতী নারীদেরও ঝুঁকিপূর্ণ অপারেশনের (সিজার) মাধ্যমে বাচ্চা প্রসব করানো হতো। এছাড়াও চিকিৎসা বিদ্যায় পড়াশোনা না করেও নামের আগে ডা. লিখে সাধারণ লোকজনকে বোকা বানাতো।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, ডাক্তার পি কে শাহীন এর আগেও গাইবান্ধার সাদুল্ল্যাপুর ও পলাশবাড়ী উপজেলায় নামে বেনামে একাধিক ক্লিনিক পরিচালনা করার অপরাধে বেশ কয়েকবার জেল ও অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছিলেন। 

প্রজন্মনিউজ২৪/জহুরুল হক

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ