আজই ভারতের উদ্দেশে রওনা দিচ্ছে যুদ্ধবিমান রাফাল

প্রকাশিত: ২৭ জুলাই, ২০২০ ০১:৫০:৪৫

 

সমরাস্ত্রে চীনকে টক্কর দিতে কোমর বেঁধেছে ভারত। ভারতীয় সেনাবাহিনীর অস্ত্র ভাণ্ডারের আধুনিকীকরণ করতে মোটা অঙ্কের টাকাও ধার্য করেছে দেশটির সরকার। চীনের রক্তচাপ বাড়িয়ে আজই ফ্রান্স থেকে ভারতের উদ্দেশে রওনা দিচ্ছে পাঁচটি রাফাল যুদ্ধবিমান।

ভারতীয় পাইলটরাই যুদ্ধ বিমানগুলোকে উড়িয়ে আনবেন। সব ঠিক থাকলে বুধবার দেশে পৌঁছাবে অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমানগুলো। হরিয়ানার আম্বালা বায়ুসেনা ঘাঁটিতে ‘গোল্ডেন অ্যারো’ ১৭ নম্বর স্কোয়াড্রনের অন্তর্ভুক্ত করা হবে এই যুদ্ধবিমানগুলো। সব প্রস্তুতি ঠিক থাকলে সাতদিনের মাথায় রাফাল পাঠিয়ে দেওয়া হবে পূর্ব লাদাখে।

ভারতীয় বিমানবাহিনী সেনা সূত্রের খবর, ভারতে আসার আগে পাইলটরা সাময়িক বিরতি নেবেন আবু ধাবির আল ধাফরা বিমানঘাঁটিতে। মাঝ আকাশে দু’বার জ্বালানি ভরা হবে ফাইটার জেটগুলোতে। ওই যুদ্ধবিমানগুলোতে সঙ্গে দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার প্রযুক্তিও যুক্ত করেছে দাসো অ্যাভিয়েশন।

প্রসঙ্গত, রাফালে যুদ্ধবিমান ওড়ানোর জন্য ফ্রান্স থেকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে দেশের ১২ জন পাইলটকে। এয়ারবাস ৩৩০ মাল্টিরোল ট্যাঙ্কার ট্রান্সপোর্ট এয়ারক্রাফ্ট উড়িয়ে কীভাবে মাঝ আকাশে জ্বালানি ভরতে হবে সেই প্রশিক্ষণ নিয়েছেন পাইলটরা। রাফাল যুদ্ধবিমান ওড়ানোর পদ্ধতি ও মাঝ আকাশে জ্বালানির ভরার প্রক্রিয়া জানতে আরও ৩৬ জন বায়ুসেনার পাইলটের নাম নথিভুক্ত করা হয়েছে। তারাও ফ্রান্সে গিয়ে প্রশিক্ষণ নেবেন।

সামরিক পরিভাষায় রাফালকে বলে মাল্টিরোল কমব্যাট এয়ারক্র্যাফ্ট। অনেক উঁচু থেকে হামলা চালানো, যুদ্ধজাহাজ ধ্বংস করা, মিসাইল নিক্ষেপ এমনকি পরমাণু হামলা চালানোর ক্ষমতাও রয়েছে রাফালের। রাফালকে আরও শক্তিশালী করার জন্য ‘মেটিওর’ এবং ‘স্কাল্প’ নামে দুটি মিসাইলও যোগ করা হতে পারে। পাশাপাশি এটিকে আরও শক্তিশালী করতে আনা হচ্ছে হ্যামার ক্ষেপণাস্ত্রও।
প্রজন্মনিউজ২৪/জহুরুল হক

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ