শ্রমিক কল্যাণের ‘চাঁদার’ কোটি টাকার হদিস নেই

প্রকাশিত: ১৭ মে, ২০২০ ১১:২০:১৮

রাজশাহীতে ট্রাক শ্রমিকদের কল্যাণে রাস্তা থেকে তোলা টাকার হদিস মিলছে না। সেই টাকার হিসেবে নিতে শুক্রবার দুপুরে রাজশাহীর ট্রাক শ্রমিকরা জড়ো হয়। এনিয়ে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। এর ভেতরে পড়ে এক ট্রাকচালক অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার নাম সোহরাব আলী (৩৫)। তিনি একজন ট্রাকচালক ছিলেন। তার বাড়ি নগরীর খোজাপুর এলাকায়।

শুক্রবার (১৫ মে) দুপুর আড়ায়টার দিকে নগরীর ঘোড়ামারা এলাকায় জেলা ট্রাক, ট্যাংক লরি ও কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। শ্রমিক সোহরাবের মৃত্যুর খবরে বিক্ষোভ করে অন্য শ্রমিকরা। এসময় চরম উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
 
বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে ওই শ্রমিকের মরদেহ ইউনিয়ন কার্যালয়ের সামনে আনা হলে আরেক দফা বিক্ষোভ করে শ্রমিরকা। এসময় নিজেদের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটে। পরে পুলিশের পাহারায় নিহত শ্রমিক সোহরাবের মরদেহ নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।
 
ট্রাক শ্রমিকরা জানায়, সকাল থেকে শ্রমিকরা ইউনিয়নের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন। টাকার হিসাবের দাবিতে অবরুদ্ধ করে রাখেন জেলা ট্রাক, ট্যাংক লরি ও কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে। তখন মনির হোসেন নামে এক ট্রাকচালক বলেন, শ্রমিকদের উন্নয়নের নামে সড়কে কোটি কোটি টাকা চাঁদা তোলা হয়। কিন্তু এখন সেই টাকার কোনো হিসাব পাওয়া যাচ্ছে না।
 
তিনি জানান, তাদের সংগঠনের সদস্য সংখ্যা প্রায় ২ হাজার ৬০০ জন। সম্প্রতি তাদের ইউনিয়নের সভাপতি ফরিদ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আক্কাস আলী কিছু শ্রমিককে ডেকে ৮ কেজি করে চাল ও ২ কেজি করে আলু দিচ্ছিলেন। শ্রমিকদের কেউ কেউ বেকায়দায় পড়ে নিয়েছেন। কিন্তু বেশিরভাগই সেই চাল-আলু প্রত্যাখান করে তাদের টাকার হিসাব চেয়েছেন।
 
সেদিন ১১ মে হিসাব দেয়া হবে বলে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক জানান। কথামতো তারা সেদিন ইউনিয়ন কার্যালয়ে যান। কিন্তু হিসাব না দিয়ে আবারও ১৫ মে দিন দেয়া হয়। কথামতো তারা এ দিনও এসেছেন। কিন্তু তাদের জানানো হয়েছে হিসাব প্রস্তুত করা হয়নি। তাই তারা অবস্থান নিয়েছেন।

প্রজন্ম নিউজ/ নুর

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ