করোনা সহায়তায় ইউএইচডি'র সাহসী ৫ তরুনের গল্প

প্রকাশিত: ২৭ এপ্রিল, ২০২০ ০৪:৩০:২৫ || পরিবর্তিত: ২৭ এপ্রিল, ২০২০ ০৪:৩০:২৫

বৈশ্বিক মহামারী কোভিট-১৯ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি রোধে লকডাউন এলাকার কর্মহীন ও আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল পরিবারে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে ইউনিটি ফর হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট (ইউ এইচ ডি)।

ঢাকা ও রাজবাড়ী জেলায় খাদ্য সহায়তা ছাড়াও বেশ  কিছু সমাজকল্যাণমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেছে ইউএসডি ১৫ জন স্বেচ্ছাসেবী ও ৫ জন উদ্যোক্তা। এই ২০ তরুণের নেতৃত্বে অসচ্ছলদের পাশাপাশি রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার শতাধিক ক্ষুধার্ত কুকুরের খাবারের ব্যবস্থা করছে সংগঠনটি।

সংগঠনটির কর্মকাণ্ডের মধ্যে করোনা ভাইরাসের কারণে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে পাঁচ শতাধিক পরিবারকে ফুড প্যাকেজ প্রদান করা হয়েছে। 

​​​প্রতিটি ফুড প্যাকেজে চাল, ডাল, তেল, আলু, পেঁয়াজসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ছিল। এছাড়া রাজধানীর বাহিরে রাজবাড়ী জেলায় দুই শতাধিক পরিবারকে একই ধরনের ফুড প্যাকেজ প্রদান করা হয়েছে।

বিতরণ করা এসব পরিবারের মধ্যে রিকশাচালক,  দিনমজুর, হোটেল শ্রমিক, হকার, পথশিশু, ট্যানারি শ্রমিকসহ সকলেই নিম্নআয়ের মানুষ। যারা দিন আনে, দিন খায়। করোনা ভাইরাসের কারণে দেশের চলমান লকডাউনে যাদের রোজগার দেড় মাস যাবত বন্ধ। 

এছাড়া রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে করোনা ভাইরাস মোকাবেলার অগ্রসৈনিক সেবিকা, ওয়ার্ডবয় ও চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত এমন নিম্ন ও মধ্যআয়ের শতাধিক ব্যক্তিকে প্রস্তুতকৃত পুষ্টিকর খাবার সরবরাহ করা হয়েছে।

​​​​​​করোনা ভাইরাস মোকাবেলা ও জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে রাজধানীর হাজারীবাগে একটি করোনা সেল গঠন করেছে ইউনিটি ফর হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট (ইউ এইচ ডি)। যেখানে সব বয়সের মানুষ করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতামূলক বিভিন্ন সেবা পাচ্ছেন। পাশাপাশি বিভিন্ন গলি ও রাস্তা জীবাণুমুক্তকরণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে। ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে পারে এমন জায়গা চিহ্নিত করে জীবাণুনাশক ছিটানো হয়েছে।

সংগঠনের নিবেদিতপ্রাণ কর্মীরা শুধু যে মনুষ্যত্বের জয়গান গান তাই নয়। লকডাউন পরিস্থিতির এ সময়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার ফুটপাতে বসবাস করা শতাধিক কুকুরকে রান্না করা খাবার সরবরাহ করেছে।

মোঃ সুমন, রবিউল আউয়াল বাবু, মোঃ আরমান, কামরুল হাসান ও আশরাফুল সুমনের নেতৃত্বে আরো পনের জন স্বেচ্ছাসেবীসহ মোট বিশজনের টিম দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে।

চলতি রমজানে নিম্ন ও মধ্যবিত্ত আড়াইশো পরিবারকে সেহরী ও ইফতার সামগ্রী ছোলা, বুট, মুুুরি, বেসন তেলসহ ইফতারের প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহ করার পরিকল্পনা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। যার প্রতিটি প্যাকেজে ৫৫০ টাকার খাদ্য সামগ্রী থাকবে।

এছাড়া রমজানের মাঝামাঝিতে আরো দুই শতাধিক পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করার পরিকল্পনাও প্রক্রিয়াধীন। 

আসন্ন ঈদুল ফিতরে ছিন্নমূল শিশুদের জন্য ঈদ পোশাক ও নতুন জামা প্রদানের ও পরিকল্পনা নিয়েছে ইউনিটি ফর হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট।

জানতে চাইলে সংগঠনের আহ্বায়ক মো: সুমন বলেন, "দেশের এমন ক্রান্তিকালে যুবকরা এগিয়ে না এলে অসহায় মানুষেরা কোথায় যাবে। শুধুমাত্র সরকারের পক্ষে সবার দিকে দৃষ্টি দেয়া সম্ভব নয়। আমাদের মতো তরুণ ও যুবকরা এগিয়ে এলে সমাজ থেকে অনেক সমস্যা দূর হবে। তরুণ ও যুবকরা এ ধরনের সমাজকল্যাণমূলক কাজে এগিয়ে আসবে এটাই প্রত্যাশা।"

সংগঠনের আরেক আহ্বায়ক রবিউল আউয়াল বাবু বলেন, স্বচ্ছল  অনেকেই সুবিধাবঞ্চিতদের পাশে দাঁড়াতে চায় কিন্তু বন্টন ও নেতৃত্বে সঙ্কটে সহায়তা করতে পারেনা। আবার অনেকেই নেতৃত্ব দিতে পারেন কিন্তু আর্থিকভাবে সহায়তা করতে পারে না। দুটোর সমন্বয় হলেই অনেক দৈন্যদশা দূর হবে। সেই চিন্তা থেকেই আমাদের এগিয়ে আসা। আমরা পুরোপুরি সমস্যা দূর করতে না পারলেও কিছুটা লাঘব করতে পারবো।"

সংগঠনের সামগ্রিক কর্মকাণ্ড উদ্যোক্তাদের নিজস্ব তহবিল, নিকট বন্ধু ও কিছু শুভাকাঙ্ক্ষীর অর্থায়নে হয়েছে। কিন্তু ব্যাপক কর্মকাণ্ড পরিচালনা ও আর্থিক সহায়তা বাস্তবায়নে অর্থনৈতিক অসচ্ছলতা বড় বাঁধা।

সংগঠনের চিত্র তুলে ধরতে একটি ফেসবুক পেজ খোলা হয়েছে যেকোনো শুভাকাঙ্ক্ষী যোগাযোগ ও আর্থিক সহায়তায় দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারেন।

দেশের বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ-বন্যা, জলোচ্ছ্বাস, মহামারী, অগ্নিকাণ্ড ইত্যাদি সমস্যায় গরিব দুস্থ, ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পাশে সাহায্যের হাত বাড়ানোর লক্ষ্য নিয়ে চলতি বছরের মার্চে ইউনিটি ফর হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট ইউএসডি'র আত্মপ্রকাশ হয়। প্রাকৃতিক দুর্যোগ ছাড়াও বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত গরীব রোগীদের বিভিন্নভাবে সাহায্য ও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয় সংগঠনটি।

প্রজন্ম নিউজ/নুর

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন