নিজের জানাজা নিয়ে লাইভে যা বললেন ব্যারিস্টার সুমন

প্রকাশিত: ১৯ এপ্রিল, ২০২০ ০৩:৪২:৫৭

লকডাউন ভেঙে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের জ্যেষ্ঠ নায়েবে আমির মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারীর জানাজায় ব্যাপক লোকসমাগমের ঘটনায় দেশজুড়ে চলছে তুমুল আলোচনা সমালোচনা। 

এবার মাওলানা জুবায়েরের জানাজায় জনসমাগম নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের সাবেক প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়েদুল হক সুমন।

এ নিয়ে গতকাল শনিবার বিকেলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক লাইভে আসেন তিনি। সেখানে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ‘আমার নিজেরও আনসারী সাহেবের জানাযায় যাওয়ার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু দেশে এখন মহামারি। মহামারির সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউন চলছে। প্রিয় নবীর একটি বাণীর কথা স্মরণ করে আমি জানাযায় যাইনি। প্রিয় নবী বলেছেন, “কোন এলাকায় মহামারি দেখা দিলে  আপনি যে জায়গায় আছেন, সেখানেই থাকবেন। অন্য কোন জায়গায় যাবেন না। অন্য জায়গা থেকেও মহামারি এলাকায় আসতে দিবেন না।” 

ব্যারিস্টার সুমন আরও বলেন, ‘এই লকডাউন অবস্থায় জানাজায় লাখ লাখ মানুষ দেখে আমার খুব খারাপ লেগেছে। আপনি বাসায় দুই রাকাত নামাজ পড়েও তার প্রতি সন্মান দেখাতে পারতেন। এরকম একটা মহামারির সময়  আপনারা লকডাউন ভঙ্গ করে পুরো ব্রাক্ষণবাড়িয়া, সিলেট অঞ্চল অরক্ষিত করে দিলেন। করোনাভাইরাস বিস্তারের সুযোগ করে দিলেন। করোনা তো এখন পুরো জায়গা দখল করে নিবে। এর থেকে কষ্টের কিছু নেই। প্লিজ আপনারা আর এ রকম করবেন না।’

এসময় ব্যারিস্টার সুমন আবেগতাড়িত কন্ঠে বলেন, ‘এখন যদি আমার নিজের জানাজাও হয়, দুই/চারজনের বেশি লাগবে না। এটা আমার এলাকার মানুষদেরকেও বলছি। কারণ আমি তো দুনিয়া থেকে বিদায় নিচ্ছি, যাতে আমার কারণে, আমার জানাজায় এসে অন্য কোনও মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হন।’

গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় সরাইলের জামিয়া রহমানিয়া বেড়তলা মাদরাসায় মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে দেশের বিভিন্ন স্থান ও জেলার শীর্ষ আলেমরা ছাড়াও হাজার হাজার মাদরাসাছাত্র ও সাধারণ মানুষ অংশ নেয়। জানাজায় ইমামতি করেন মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারীর ছেলে হাফেজ মাওলানা আসাদ উল্লাহ।

গত শুক্রবার বিকেল পৌনে ৬টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের মার্কাসপাড়ায় নিজ বাড়িতে মারা যান মাওলানা জুবায়ের। 

প্রজন্মনিউজ২৪/নুর

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন