ঢাকা-১০ উপনির্বাচন: ভোটার উপস্থিতি কম

প্রকাশিত: ২১ মার্চ, ২০২০ ১২:০৪:৩৩

বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক। দেশে দেশে জরুরি অবস্থা ও লকডাউনের মধ্যেই চলছে মানুষের দৈনন্দিন জীবন। এরই মধ্যে ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। করোনার আতঙ্কে কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিত একেবারেই কম।

বিভিন্ন কেন্দ্রে ঘুরে দেখা যায়, কিছু কিছু ভোটকেন্দ্রে অল্প কিছু ভোটার রয়েছেন। কিন্তু অধিকাংশ কেন্দ্রেই ভোটার নেই। কয়েকজন ভোটারের সাথে কাথা বলে জানা যায়, করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে ভোটাররা ভোট দিতে আসছেন না। অনেকে বলছেন, মাত্র ভোট শুরু হয়েছে, তাই হয়তো ভোটার কম। সময় গড়ালে ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের সংখ্যা বাড়তে পারে। ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে সকাল ৯টায়, চলবে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত।

এ আসনে জাতীয় পার্টি  মনোনীত প্রার্থী হাজী শাহজাহান বলেন, আমাদের (জাপা) সকল এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। এবং আমাকে ও আমার ছেলেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা লাঞ্চিত করেছে।

এই ঢাকা-১০ আসনটি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১৪, ১৫, ১৬, ১৭, ১৮ ও ২২ নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত। আসনটিতে ভোটার রয়েছেন ৩ লাখ ১২ হাজার ২৮১জন। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১১৭টি এবং ভোট কক্ষের সংখ্যা ৭৭৬টি। এই নির্বাচনে ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তারা হলেন- আওয়ামী লীগ থেকে মো. শফিউল ইসলাম, বিএনপি থেকে শেখ রবিউল আলম, জাতীয় পার্টি থেকে হাজী মো. শাহজাহান, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল থেকে কাজী মুহাম্মদ আবদুর রহিম, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ থেকে নবাব খাজা আলী হাসান আসকারী এবং বাংলাদেশ কংগ্রেস থেকে মো. মিজানুর রহমান।

উল্লেখ্য, ঢাকা-১০ আসন সহ আরও দুটি আসে এই নির্বাচন চলছে। গাইবান্ধা-৩ ও বাগেরহাট-৪। তবে ঢাকা-১০ আসনের ভোট ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) হওয়ায় এই আসনের ভোটাররা একটু বেশিই আতঙ্কিত। বাকি দুই আসনে ব্যালটে ভোট হচ্ছে। জনসমাগম হওয়ায় এই আসনগুলোর ভোটাররাও আতংকে রয়েছে৷

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ