অবশেষে আশামনির নিথর দেহ উদ্ধার

প্রকাশিত: ০৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০৪:১০:০৯

রাজধানীর কদমতলীতে খালে পড়ে নিখোঁজের ৬ দিন পর শিশু আশামনির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে তাকে উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। আশামনির মরদেহ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশামণির চাচা বিল্লাল হোসেন।

শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) বল কুড়াতে গিয়ে কদমতলীর মেরাজনগরের ডিএনডি খালে তলিয়ে যায় ৫ বছর বয়সী আশামনি। এরপর থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা খালে নেমে তল্লাশি চালালেও গত পাঁচদিন ধরে সফল হননি তারা।

এলাকাবাসী এবং ফায়ার সার্ভিস জানায়, খালটি কাদা ও ময়লা-আবর্জনায় ভরা। ফলে খালের আবর্জনায় তলিয়ে যাওয়ার পর থেকে সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না আশামনির। আজ সকালেও নিখোঁজ আশামনির সন্ধানে ডিএনডি খাল সংলগ্ন মেরাজনগর ফারুকের গ্যারেজে দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

মেরাজনগর বায়তুস সালাহ জামে মসজিদ মরহুম হাজি আবদুল লতিফ জামে মসজিদসহ এলাকার বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও এইচ ইউসুফ হাই স্কুলের শিক্ষার্থী এলাকার বিভিন্ন শ্রেণির লোকজন এ মোনাজাতে উপস্থিত ছিলেন। মোনাজাতের পরই দুপুরের দিকে আশামনির মরদেহ খুঁজে পায় ডুবুরিরা।

গত শনিবার বিকালে কয়েকজন শিশুর সঙ্গে খেলতে গিয়ে ডিএনডির খালে বল পড়ে যায়। আশামনি বলটি উঠাতে গিয়ে খালের পানিতে ডুবে যায়। এসময় আশামনি আমাকে বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার শুরু দেয়।

শিশু ফরাজ আশামনিকে উদ্ধার করতে আশামনিকে হাত বাড়িয়ে দেয়। এ সময় ফরাজের পা পিছলে যায়। এরই মধ্যে আশামনি ডুবে যায় ও স্রোতে অন্যত্রে চলে যায়। শিশু আবদুল্লাহ তার মায়ের কাছে সংবাদ জানায়। শিশুর মা আসতে আসতে আশামনি নিখোঁজ হয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন খালে নেমেও শিশু আশামনির সন্ধান পায়নি।

১ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) রাজধানীর কদমতলীর ডিঅ্যান্ডডি প্রজেক্টের খালে পড়ে নিখোঁজ হয় আশামনি।

প্রজন্মনিউজ২৪/রেজাউল

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন