সরবরাহ বাড়ায় রাজধানীতে সবজির দাম কমেছে

প্রকাশিত: ০১ জানুয়ারী, ২০১৭ ০৬:২৪:১২

সরবরাহ বাড়ায় রাজধানীর বিভিন্ন কাঁচাবাজারে সবজির দাম কমতে শুরু করেছে। নতুন আলু থেকে শুরু করে ফুলকপি, বাঁধাকপি, টমেটো, শিমসহ প্রায় সব ধরনের সবজির দামই কেজিতে ৫ থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত কমেছে।

ব্যবসায়ীরা বলেছেন, বাজারে এখন শীতের সবজির সরবরাহ প্রচুর। এছাড়া শুরুতে শীতকালীন সবজির প্রতি ক্রেতাদের যে চাহিদা থাকে সময়ের সাথে সেই চাহিদাও কিছুটা কমে। ফলে এখন সবজির দাম কমতে শুরু করেছে।

শুক্রবার রাজধানীর কাওরানবাজার ও নিউমার্কেটসহ কয়েকটি বাজারে সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে সবজির দামের এ চিত্র পাওয়া যায়।বাজারে বিভিন্ন ধরনের সবজির মধ্যে প্রতি কেজি শিম মানভেদে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, বেগুন ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, করলা ৪০ টাকা, ঢেঁরস ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, ঝিঙা ২৫ থেকে ৩০ টাকা, পেঁপে ২০ থেকে ২৫ টাকা, কাঁকরোল ৪০ থেকে ৪৫ টাকা, পুরনো আলু ২০ থেকে ২৫ টাকা, নতুন আলু ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, মূলা ২০ থেকে ২৫ টাকা, কচুর লতি ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, শালগম ২৫ থেকে ৩০ টাকা, শশা ৩০ টাকা, টমেটো ৪০ থেকে ৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া ফুলকপি ও বাঁধাকপি প্রতিটি ২০ থেকে ২৫ টাকা ও লেবুর হালি ১৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি কাঁচামরিচ ৪০ টাকা, দেশি পেঁয়াজ ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, আমদানিকৃত পেঁয়াজ ২০ থেকে ২৫ টাকা, দেশি রসুন ১৬০ থেকে ১৭০ টাকা এবং আমদানিকৃত রসুন ১৮০ থেকে ২০০ টাকা, আদা মানভেদে ৭০ থেকে ১২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সবজির দাম কমা প্রসঙ্গে কাওরানবাজারের সবজি বিক্রেতা আমজাদ বলেন, প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন মোকাম থেকে প্রচুর সবজি আসছে রাজধানীর বাজারগুলোতে। এজন্য দাম কমছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন আর সবজির দাম বাড়ার কারণ নেই। উল্টো কমবে।

এদিকে সবজির দাম কমলেও নিত্য প্রয়োজনীয় মুদি পণ্য আগের দরেই বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি দেশি মসুর ডাল ১২৫ থেকে ১৩৫ টাকা, তুরস্ক/কানাড়ার বড়দানা মসুর ডাল ৯০ থেকে ১০৫ টাকা, মাঝারিদানা মসুর ডাল ১১০ থেকে ১২০ টাকা, মুগ ডাল ৮০ থেকে ১১৫ টাকা, ছোলা ৮৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া বোতলজাত সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ৯৫ থেকে ১০২ টাকা এবং খোলা সয়াবিন তেল কেজি প্রতি ৮০ থেকে ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি ১৫৫ থেকে ১৬৫ টাকা, লেয়ার মুরগি ১৬০ টাকা ও পাকিস্তানি লাল মুরগি আকারভেদে ২৫০ থেকে ২৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। মাংসের মধ্যে প্রতি কেজি গরু ৪৩০ টাকা এবং খাসির মাংস ৬২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। 

মাছের মধ্যে আকার ভেদে প্রতি কেজি রুই মাছ ২৫০ থেকে ৪৫০ টাকা, কাতল ২৮০ থেকে ৫০০ টাকা, তেলাপিয়া ১৪০ থেকে ১৮০ টাকা, পাঙ্গাস ১২০ থেকে ১৬০ টাকা, চাষের কৈ ২০০ থেকে ২৫০ টাকা ও দেশি মাগুর ৬০০ থেকে ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া বিভিন্ন ধরনের চালের মধ্যে প্রতি কেজি নাজিরশাইল/মিনিকেট মানভেদে ৪৪ থেকে ৫৬ টাকা, পাইজাম/লতা মানভেদে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা ও মোটা চাল স্বর্ণা/ইরি ৩৫ থেকে ৩৮ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

প্রজন্মনিউজ২৪/এজি

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ