চট্টগ্রামে পাশের হার ৮২.৯৩ শতাংশ, বেড়েছে জিপিএ-৫

প্রকাশিত: ০১ জানুয়ারী, ২০২০ ১২:০৪:৪৫

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেছে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড। এবার চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৮২.৯৩ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ হাজার ৪১ জন শিক্ষার্থী।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার এবং জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা গত বছরের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। এবার চট্টগ্রাম বোর্ডের অধীনে এক হাজার ২৭৪টি বিদ্যালয়ের ২ লাখ ৮ হাজার ৯৬২ জন শিক্ষার্থী জেএসসি পরীক্ষায় অংশ  নেয়ার কথা ছিল। তবে পরীক্ষায় অংশ নেয় ২ লাখ ৫ হাজার ৮৭১ জন। এর মধ্যে পাস করেছে ১ লাখ ৭০ হাজার ৭৩৪ জন।


মঙ্গলবার ফল ঘোষণা করেন বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক নারায়ন চন্দ্র নাথ। তিনি বলেন, অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে দ্রুত পদক্ষেপ, খাতা মূল্যায়নে আন্তরিক হওয়ার নির্দেশনা এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষকদের সংখ্যা বাড়ার কারণে জেএসসির ফলাফলে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

নগর ও জেলায় পাশের হার বিষয়ে বলেন, সাধারণত নগরের বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জেলার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের চেয়ে বেশি সুযোগ-সুবিধা পান। ফলে জেলার চেয়ে নগরের বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাসের হার এবং জিপিএ-৫ পাওয়ার সংখ্যা বেশি থাকে। তাছাড়া রাঙামাটি, বান্দরবান এবং খাগড়াছড়ির পার্বত্য এলাকার অভিভাবকদের সচেতনতার অভাব রয়েছে। অনেকে দারিদ্রতার কারণে সন্তানদের পড়াশোনার সমস্ত সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে পারেন না। শিক্ষকদের সবাই প্রশিক্ষিত না। ফলে সেখানে পাসের হার কিছুটা কম থাকে।

এদিকে চট্টগ্রামের পাঁচ জেলা স্কুলের মধ্যে প্রথম হয়েছে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল, দ্বিতীয় হয়েছে ডা. খাস্তগীর স্কুল, তৃতীয় হয়েছে বাওয়া স্কুল, চতুর্থ হয়েছে বাংলাদেশ নেভাল একাডেমি স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং পঞ্চম হয়েছে সরকারি মুসলিম হাই স্কুল।

প্রজন্মনিউজ২৪/ সজীব

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন