দিনাজপুর সরকারি কলেজে ‘রজত জয়ন্তী’ উদযাপন

প্রকাশিত: ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৬:৪২:০৯

দিনাজপুর প্রতিনিধি: ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে দিনাজপুর সরকারি কলেজে দিনভর নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে আজ উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগে ‘রজত জয়ন্তী‘  উদযাপন করেছে।

আজ সকাল ১০ টায় কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ‘রজত জয়ন্তী‘ উৎসবের বেলুন উড়িয়ে উদ্বোধন করেন উপাধক্ষ প্রফেসর মো: আব্দুল বাছেদ মন্ডল । বিভাগীয় প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক জনাব মো: জাহেদুল রহমান সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী পর্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক পরিষদের সাধারন সম্পাদক জনাব মো: দাইমুল ইসলাম। উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে কলেজ মাঠএর সামনে থেকে বের করা হয় ‘রজয় জয়ন্তী‘ র‌্যালি। এটি ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই জায়গায় এসে শেষ হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাননীয় উপাধক্ষ প্রফেসর জনাব মো: আব্দুল বাছেদ মন্ডল  বলেন, ‘যারা এই বিভাগ থেকে বিভিন্ন স্থানে কাজ করো তারা এবং নতুনেরা সবাই দূনীতি মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে সহযোগিতা করতে বলেন । আর প্রকৃত শিক্ষার মাধ্যমে আমাদের এই মনকে বড় করতে হবে। তা নাহলে আমরা  এই জাতিকে কিছু দিতে পারবো না। এজন্য আমাদের বঙ্গবন্ধুর জীবন থেকে শিক্ষা নেওয়া উচিত।‘ তিনি আরো বলেন,‘ শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য হওয়া উচিত প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়া, ভালো মানুষ হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করা। আর প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হলেই কেবল দেশ ও জাতিকে সেবা করা সম্ভব।‘

‘রজত জয়ন্তী‘ উৎসবে বিভাগের বিপুল সংখ্যক বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীর সমাগম ঘটে। এই উপলক্ষে বিভাগ ও বিভাগের সামনের চত্বরে বর্ণিল আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয়। দিনাজপুর সরকারি কলেজের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিবাগের দ্বিতীয় ব্যাচের শিক্ষার্থী মো: সামিউল তার অনুভূতি ব্যক্ত করে বলেন,‘ দীর্ঘ চব্বিশ বছর পরে এখানে এসে আমি আমার বন্ধুদের সাথে আবার দেখা করার সুযোগ পয়েছি। এখানে না আসলে হয়তো তাদের সাথে দেখা হতো না। এটি আমাদের সবাইকে একত্র করার একটি বড় প্লাটফর্ম যার কারণেই আমি এই অনুষ্ঠানে এসেছি।‘

উদ্ভিদ বিভাগের আব্দুর কাদের নামে একজন অনার্স শিক্ষার্থী  জানান,‘এই অনুষ্ঠান আসলে সাবেকদের সাথে পরিচিত হওয়ার একটি বড় সুযোগ। যারা এই বিভাগ থেকে ২৪-২৫ বছর আগের বের হয়ে গেছে তাদের সবার সাথে আমাদের পরিচিতি নেই। এখানে সাবেক সব বড় ভাই-বোনেরা এসেছেন , যাদের সাথে আমরা পরিচিতি হওয়ার সুযোগ পাচ্ছি। এটি আমাদের পরবতী জীবনে প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে একটা সুফল বয়ে আনবে বলে আমি মনে করি।‘

প্রজন্মনিউজ২৪/তাফহিমুল/জাহিদ

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন