বাচ্চাদের নিয়ে সুইসাইড করার হুমকী দিলেন এমপি বুবলী

প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর, ২০১৯ ০৫:২৪:০২

নরসিংদীর সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য তামান্না নুসরাত বুবলী গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্দেশে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সোমবার নিজের ফেসবুক আইডি থেকে স্ট্যাটাসটি দেয়ার পর কিছুক্ষণ পর তা মুছে ফেলা হয়। তবে যুগান্তরের কাছে এমপি বুবলীর স্ট্যাটাসের স্ক্রিনশট রয়েছে।

এমপি বুবলীর স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে দেয়া হলো-‘প্রিয় সাংবাদিক ভাইগণ, আমার জানা মতে আমি ব্যক্তিগতভাবে কারো সঙ্গেই কোনোদিন খারাপ আচরণ বা সামাজিকতার যে আন্তরিকতা সেটা কমতি রাখিনি কোনোদিন। যখন নরসিংদী ছিলাম মেয়র লোকমান হোসেনের সহধর্মিনী হিসেবে আপনারা ওনার মারা যাওয়ার পর আমার অকালে বিধবা হওয়া, লড়াই, সংগ্রামী জীবন ছেলে মেয়ে ছোট তাদের নিয়ে একা লড়াই দেখে আফসোস সান্ত্বনা সবই দিতেন।

সবাই হায় আফসোস করতো কিন্তু ধারে ভারে কেউ ছিল না আমার। যুদ্ধ জয় কি জিনিস জানতাম না তবে ছুটতে হবে উপায় নাই। বাজার করা থেকে শুরু করে ছেলে মেয়ে নিয়ে কতটা লড়েছি এখনও তারা ছোট নাই বা বললাম, কেন যেন এখন সব চাইলেই লিখতে পারি না। কারণ একটা সংকোচের জায়গাতে অবস্থান করছি। আমি সংসদ সদস্য হবার পর আলহামদুলিল্লাহ স্যালারি দিয়ে ছেলে মেয়েকে ভালো স্কুলে পড়াই, যাবতীয় নিজ খরচ বহন করি।

সামান্য সঞ্চয় করছি এখান থেকেই, যাতে করে ৫ বছর পর এটা আমাদের কাজে লাগে। আপনাদের অনেক লেখা আমার চোখে পড়ে যারা আফসোস করতেন, আজ তারা টেনেহিঁচড়ে সংসদ থেকে নামাতে মরিয়া হয়ে লিখছেন। ব্যক্তিগত জীবনে চাওয়া পাওয়ার হিসেব রাখিনি। নরসিংদীবাসীকে ভালোবেসেছি। কিছু অপশক্তি পেছনে লেগেছে, কতকিছু ঘটনা দেশে ঘটে, এত লেখালেখি কেউ করে না। আপনারা এটা নিয়ে এমনভাবে লিখছেন যেন আমার জন্য ৫০ জীবন শেষ হয়ে গেছে। লুটপাট হয়েছে, সর্বনাশ হয়েছে অনেকের।

আমার যদি কিছু হয়... দুই বাচ্চা নিয়ে সুইসাইড করি খুশি হবেন তো আপনারা? ঠিক আছে আপনাদের খুশিই আমার খুশি। ভালো থাকুক আমার সাংবাদিক ভাইরা, আল্লাহ ভালো রাখুক আপনাদের। আমার এ জীবনে পাওয়ার চাইতে মনের দুঃখে মরেছি অনেকবার, বারবার মরার চাইতে একবারে মরে গেলেই ভালো মনে করি। আমার সোনামনিদের নিয়ে ভালো আছি ভালো থাকবো ইনশাআল্লাহ। তাদের ছায়া আমি, দোয়া করবেন সবাই।’

প্রসঙ্গত বিএ পরীক্ষায় জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে দলের সুনাম ক্ষুণ্ণ করায় নরসিংদীর সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি তামান্না নুসরাত বুবলীকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। এছাড়া জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক পদ থেকেও তাকে অপসারণ করা হয়েছে। এমপি বুবলী ২০১১ সালে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত নরসিংদী পৌরসভার তৎকালীন মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেনের স্ত্রী।

একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া হলফনামা অনুযায়ী, বুবলী এইচএসসি পাস। তবে নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা বাড়িয়ে নিতে তিনি বাউবির বিএ কোর্সে ভর্তি হন। বুবলী ঢাকায় থাকলেও তার হয়ে নরসিংদীতে অন্যদের বিএ পরীক্ষা দেয়ার বিষয়টি উঠে আসে গণমাধ্যমের খবরে। এই ঘটনায় বুবলীকে সব পরীক্ষা ও রেজিস্ট্রেশন বাতিল করে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (বাউবি) কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় বুবলীকে সব পরীক্ষা ও রেজিস্ট্রেশন বাতিল করে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (বাউবি) কর্তৃপক্ষ।

প্রজন্মনিউজ২৪/ মামুন

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ