নিউইয়র্কে খোকার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ০৫ নভেম্বর, ২০১৯ ১২:১৯:৫৯

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও অবিভক্ত ঢাকার শেষ মেয়র সাদেক হোসেন খোকার প্রথম জানাজা যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৮টায় এই জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় খোকার দুই ছেলে, মেয়ে ও স্ত্রী উপস্থিত ছিলেন। জানাজায় ইমামতি করেন মুসলিম সেন্টারের খতিব মাওলানা মির্জা আবু জাফর বেগ।

জানাজায় উপস্থিত ছিলেন- খোকার দুই ছেলে, মেয়ে ও স্ত্রী। সাদেক হোসেন খোকার বড় ছেলে ইশরাক হোসেন বলেন, সবার ভালবাসা ও সমর্থনের কারণে বাবাকে বাংলাদেশে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে। আর এটাই ছিল তার শেষ ইচ্ছা। বাবা যখন প্রথম এখানে (নিউইয়র্কে) এসেছিলেন, তখন থেকেই উনি চতুর্থ ধাপের ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগী ছিলেন। এ

খানে আসার পর আপনারা বাংলাদেশ কমিউনিটি যে সমর্থন দিয়েছেন, আমি ছেলে হিসেবেও সেই কাজগুলো উনার জন্য করতে পারিনি। উনার পাশে সবসময় থাকতে পারিনি। সবার প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। ইশরাক বলেন, বাংলাদেশ কনস্যুলেটকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমার বাবার মৃত্যুর পরে হলেও, পাসপোর্ট না হলেও দেশে নেওয়ার জন্য ট্রাভেল পারমিট ইস্যু করতে সব ধরনের সহযোগিতা করেছেন।উনার দাফন বাংলাদেশেই হবে। আমার মা ট্রাভেল পারমিট সংগ্রহ করতে পেরেছেন।

জানাজায় উপস্থিত ছিলেন খোকার দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সহযোগী কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা আব্দুস সালাম, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের সভাপতি ডা. সিদ্দিকুর রহমান ও নিউইয়র্ক কনস্যুলেটের ফার্স্ট সেক্রেটারি শামীম হোসেন। মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার জানাজার সময় তার কফিনটি বাংলাদেশের লাল-সবুজ পতাকায় মোড়ানো ছিল। জানাজা শুরুর আগে মুক্তিযোদ্ধারা রণাঙ্গণের এই বীর যোদ্ধাকে স্যালুট দিয়ে বিদায় জানান।

নিউইয়র্ক সময় মঙ্গলবার রাত ১১টায় আমিরাত এয়ারলাইন্সে করে সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ দেশের উদ্দেশে পাঠানো হবে। বৃহস্পতিবার সকালে মরদেহ ঢাকায় পৌঁছানোর কথা রয়েছে। সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ দেশে এলে জুরাইনে মা-বাবার কবরের পাশে দাফন করা হবে বলে জানিয়েছেন তার ছোট ভাই আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল।

উল্লেখ্য, নিউইয়র্কে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাংলাদেশ সময় সোমবার (৪ নভেম্বর) দুপুর ১টায় মারা যান সাদেক হোসেন খোকা। ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন।

প্রজন্মনিউজ২৪/ নাজিম

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন