এমসিসি কমিটি থেকে সরে দাঁড়ালেন সাকিব

প্রকাশিত: ৩০ অক্টোবর, ২০১৯ ১২:৪৩:১১

হঠাৎ এক ঝড় যেন এলোমেলো করে দিলো সাকিব আল হাসানের জীবন। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার তিনি, বিশ্বজুড়ে কত নাম যশ খ্যাতি। আইসিসির এক নিষেধাজ্ঞায় তার সবই যেন হারাতে বসেছেন। জুয়াড়ির কাছ থেকে ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব পেয়েও কর্তৃপক্ষকে না জানানোয় দুই বছর সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হয়েছেন সাকিব আল হাসান। এবার এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটি থেকেও পদত্যাগ করেছেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার।

২০১৭ সালে ইতিহাসের প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির সদস্য হন সাকিব। সম্মানিত এই পদটিতে শুধু ক্রিকেট বিশ্বের আইকনিক ব্যক্তিরাই সদস্য হিসেবে নিয়োগ পান। আইসিসি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সাকিবকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করার কথা জানায়। দোষ স্বীকার করায় এক বছরের শাস্তি স্থগিত থাকবে। এর কয়েক ঘণ্টা পর মেরিলিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি) এক বিবৃতিতে সাকিবের সরে দাঁড়ানোর কথা জানায়।

ক্রিকেটের এই ঐতিহ্যবাহী সংস্থার কমিটিতে দুই বছর আগে সুযোগ পেয়েছিলেন সাকিব। এরপর সিডনি ও বেঙ্গালুরুতে হওয়া কমিটির সভায় যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী বিধিনিষেধ ভঙ্গ করায় এবার এই সদস্যপদ থেকে সরে দাঁড়াতে হলো তাকে। কমিটি থেকে সাকিবকে হারানোয় দুঃখপ্রকাশ করেছেন এই কমিটির চেয়ারম্যান ও সাবেক ইংলিশ ব্যাটসম্যান মাইক গ্যাটিং।

সাকিবের পদত্যাগের খবর জানিয়ে এক বিজ্ঞপ্তিতে এমসিসি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ‘মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব নিশ্চিত করছে, এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির সাথে সাকিব সংশ্লিষ্টতা ছিন্ন করে পদত্যাগ করেছেন।’ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান ও ইংলিশ কিংবদন্তি মাইক গেটিং বলেন, ‘সাকিবকে কমিটি থেকে হারিয়ে আমরা ব্যথিত। গত কয়েক বছরে সে এখানে অনেক অবদান রেখেছে।

ক্রিকেটীয় চেতনার অভিভাবক হিসেবে আমরা তার পদত্যাগকে সমর্থন করি এবং বিশ্বাস করি- সে সঠিক সিদ্ধান্তটিই নিয়েছে।’ এমসিসি কমিটি ক্রিকেটের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তগুলোর প্রস্তাবনা দিয়ে থাকে। তাদের প্রস্তাবতাতেই ক্রিকেটে নানা পরিবর্তন আসে। প্রতি বছর দুবার এই কমিটির সভা হয়। ২০২০ সালের মার্চে শ্রীলংকায় পরবর্তী সভা হওয়ার কথা। সাকিব সে সময়টাতেও নিষিদ্ধই থাকবেন।  

প্রজন্মনিউজ২৪/মামুন

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ