দুর্বৃত্তদের হাতে কিশোর ভ্যান চালক জখম

প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর, ২০১৯ ০৭:০০:৪৩

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে গলায় ধারালো ছুরির আঘাত করে (চার্জার অটোভ্যান) ইজিবাইক ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে দুর্বৃতরা।যার ফলে অল্পপের জন্য বেচে যায় সপ্তত শ্রেনীতে পড়ুয়া কিশোর চালক রুহুল আমিন(১৪)।তাকে রক্তাক্ত এবং গুরুতর জখম অবস্থায় পাওয়া যায়। চিকিৎসার  জন্য তাকে (রমেক) রংপুর মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে,পলাশবাড়ী উপজেলার ২নং হোসেনপুর ইউনিয়নের মেরীরহাটের অদূরে দিগদারী গ্রামের ডাঙ্গাপাড়া মমতাজের পুকুর পাড়ে (সোমবার) ২১ অক্টোবর রাতে এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা ঘটনাস্থল থেকে অচেতন চালককে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য প্রথমে পলাশবাড়ী এবং অবস্থার অবনতি ঘটলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে (রমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,৩ সদস্যের দুর্বৃত্তচক্র ঘটনার কয়েকঘন্টা আগে ভ্যানটি ভাড়ায় নিয়ে অত্র লাোনকার বিভিন্ন স্থানে ঘুরেফিরে ওইস্থানে গিয়ে আকস্মিক ছিনতাই সংঘটিত করার চেষ্টা করে। গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কাটাবাড়ি ইউনিয়নের হামিদপুর গ্রামের(চিত্রপাড়া)শফিকুল ইসলামের ছেলে রুহুল আমিন  এসময় ওইস্থানে পৌঁছলে ছিনতাইচক্র ভ্যানরিক্সাটির গতিরোধ করে। কোনকিছু বুঝে উঠার আগেই উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করতে থাকে।

ক্ষত-বিক্ষত রক্তাক্ত রুহুলের আত্মচিৎকারে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে ছুঁটে আসার আগেই অবস্থা বেগতিক দেখে ছিনতাইকারী চক্র দ্রুত ঘটনাস্থল হতে সটকে পড়ে। প্রাথমিকভাবে ঘটনার  কোন কারন জানা যায়নি। গোবিন্দগঞ্জ মোত্তালিব নগর স্কুল এন্ড কলেজের ৭ম শ্রেনীর ছাত্র রুহুল আমিন স্কুল শেষে মাঝে-মধ্যেই পারিবারকে সহায়তায় অর্থ উপার্জনে দিনমজুর বাবার চার্জারভ্যানটি নিয়ে অত্র এলাকায় ভাড়ায় চালাতো।

রুহুল আমিনের চিকিৎসক ডা. মুনতাসির মাহমুদ শুভ জানান প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। তবে গলায় ধারালো অস্ত্রের ঘর্ষনে তার শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। গোবিন্দগন্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (মাসুদুর রহমান) হাসপাতালে গিয়ে রুহুল আমিনের সার্বিক খোঁজ খবর নেন। ঘটনার সাথে সম্পৃক্তদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

প্রজন্মনিউজ২৪/মামুন/হোসাইন আজাদ

 

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ