খুলনায় কিশোরীকে ৯ দিন আটকে রেখে গণধর্ষণ

প্রকাশিত: ২১ অক্টোবর, ২০১৯ ১০:৫৭:১১

খাইরুল বাশার : খুলনায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক ছাত্রীকে (১৪) নয় দিন আটকে রেখে গণধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে অসুস্থ হয়ে পড়লে কিশোরীকে গত শনিবার খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পুলিশ জানায়, খুলনা মহানগরীর শিরোমনি এলাকার একটি মাদরাসার নবম শ্রেণির ওই ছাত্রীর সাথে প্রায় ছয় মাস আগে জাকির নামের এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে জাকির গত ৮ অক্টোবর কিশোরীকে ফরিদপুর নিয়ে যায়। এ ঘটনায় মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে গত ৯ অক্টোবর খানজাহান আলী থানায় একটি ডায়েরি করা হয়। তাকে ফরিদপুরে আটকে রেখে জাকির তার ৭-৮ জন বন্ধু মিলে তাকে গণধর্ষণ করেছে বলে জানায়। পরে মেয়েটি গত ১৭ অক্টোবর  অসুস্থ অবস্থায় বাড়িতে ফিরে আসে।

কিশোরীর বাড়ির মালিক মঈনুল খান জানান, গত ৮ অক্টোবর শিরোমণি থেকে মেয়েটিকে ফরিদপুর নিয়ে যাওয়া হয়েছিলো। এরপর জাকির ও তার ৭-৮ বন্ধু মিলে কিশোরীকে টানা নয় দিন গণধর্ষণ করে। এতে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে ছেড়ে দিলে সে ১৭ অক্টোবর বাড়িতে ফিরে আসে।

এ ব্যাপারে খানজাহান আলী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় রোববার দুপুরে থানায় কিশোরীর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

প্রজন্মনিউজ২৪/নাবিল

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ