কাশ্মীরে ১৪২ নাবালকের মুক্তি

প্রকাশিত: ০৩ অক্টোবর, ২০১৯ ১২:৩৭:২৩

জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর থেকে মোট ১৪৪ জন আটককৃত নাবালকের মধ্যে ১৪২ জনকে পরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলের পর কাশ্মীরের বহু নাবালককে বেআইনিভাবে আটক করা হয়েছে বলে সুপ্রিম কোর্টের কাছে এক আরজিতে জানান দুই শিশু অধিকার কর্মী। এখন পর্যন্ত অন্তত ৪ হাজার মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয় রাজ্যটিতে।

এর প্রেক্ষিতে জম্মু-কাশ্মীর হাইকোর্টের নাবালক বিচার কমিটিকে তদন্ত করার নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট। বুধবার এক রিপোর্টে কমিটি জানিয়েছে, বিশেষ মর্যাদা লোপের পর থেকে ১৪৪ জন নাবালককে আটক করা হয়েছে। তার মধ্যে ১৪২ জনকে পরে ছেড়ে দেওয়া হয়।

জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের ডিজি জানান, আরজিতে পেশ করা তথ্য মনগড়া। যে সব নাবালক আইন ভেঙেছে তাদের বিরুদ্ধে আইন মেনেই পদক্ষেপ করা হয়েছে। কমিটি রিপোর্টে জানিয়েছে,  শ্রীনগরের হারওয়ান ও জম্মুর আর এস পোরায় নাবালকদের জন্য দু’টি হোম রয়েছে।

৫ আগস্ট থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ে হারওয়ানের হোমে মোট ৩৬ জন নাবালককে আনা হয়েছিল। তাদের মধ্যে ২১ জন জামিন পেয়েছে। আর এস পোরার হোমে ওই সময়কালে আনা হয়েছিল ১০ জনকে। তাদের মধ্যে ৬ জন জামিন পেয়েছে।

প্রসঙ্গত, ৫ আগস্ট সংবিধান থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নিয়ে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে বিজেপি সরকার। তার আগের রাত থেকে রাজ্যটিতে আরোপ করা হয় কঠোর নিরাপত্তা পরিস্থিতি। ইন্টারনেট সংযোগ ও মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দেওয়া হয়। তিন সাবেক মুখ্যমন্ত্রীসহ বন্দী করা হয় দু’শ এরও অধিক রাজনৈতিক নেতাকে।

প্রজন্মনিউজ২৪/তারেক আজিজ

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ