পর্যবেক্ষণ শেষ হল ইউজিসি'র তদন্ত কমিটির

ফলাফলের অপেক্ষায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের।

প্রকাশিত: ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:৩২:১৯

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) চলমান পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে গঠিত ইউজিসির তদন্ত কমিটি তাদের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

গতকাল (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৩টায় ইউজিসি'র তদন্ত টিমের আহ্বায়ক ড. মো. আলমগীরের নেতৃত্বে গঠিত পাঁচ সদস্যের দলটি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পরিদর্শন করে, এবং বিভিন্ন সময় বহিস্কৃত শিক্ষার্থী, হামলায় আহত শিক্ষার্থী সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা কর্মচারীদের বক্তব্য গ্রহণ করেন।

৫ সদস্যের তদন্ত দলের অন্য সদস্যরা হলেন- ইউজিসির সদস্য ড. সাজ্জাদ হোসেন, ড. দিল আফরোজ বেগম, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক কামাল হোসেন ও কমিটির সদস্য সচিব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উপ-পরিচালক মৌরি আজাদ।

বিকাল থেকে তদন্ত কমিটির সদস্যরা আন্দোলনরত শিক্ষার্থী, বিভিন্ন সময় বহিস্কৃত শিক্ষার্থী, হামলায় আহত শিক্ষার্থী সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা কর্মচারীদের বক্তব্য গ্রহণ করেন।

তদন্ত কমিটির প্রধান মো. আলমগীর জানান, "তারা গতকাল দুপুর হতে কাজ শুরু করেছেন, এবং চলমান পরিস্থিতি সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বক্তব্য গ্রহণ করেছি। এবং বিষয় টা আমাদের কাছে পরিষ্কার হয়েছে। আমাদের মাননীয় মহাদয় চেয়ারম্যানের কাছে জানাবো। তারপর এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হবে। পাশাপাশি তিনি এটিও জানান, আমরা আশা করি এমন একটি সিদ্ধান্ত হবে যাতে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র,শিক্ষক ও কর্মচারীর সবার মাঝে  সুন্দর একটা অবস্থান বিরাজ করে। এবং এই বিশ্ববিদ্যালয়টি আবার যেন অল্প সময়ের ভিতরে শিক্ষা ও গবেষণার মধ্যে ফিরে আসবে। আমার এই প্রত্যাশা করি।"

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে টানা ৮ম দিনের মতো আজ রাতেও আন্দোলন চলমান রয়েছে।  উপাচার্য পদত্যাগ ছাড়া কর্মসূচি প্রত্যাহার না করার ঘোষণা দিয়েছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

এর আগে তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক ড. মো. আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন,"আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক পরিস্থিতি দেখেছি, যে ছাত্র-ছাত্রী'রা আহত হয়েছে,সে ব্যাপারেও আমরা দেখেছি। তিনি আরও বলেন,আমরা আশা করবো, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা যারা আছে, তারা যেন আহত না হয়। সে ব্যাপারে সবার সহযোগীতা কামনা করবো। এবং যারা আহত করেছে তাদের ব্যাপারে প্রশাসনিক কার্যকরী পদেক্ষেপ নিবে।"

উল্লেখ্য, অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারীতা, নারীকেলেঙ্কারী সহ বিভিন্ন অভিযোগে ভিসির পদত্যাগের দাবিতে আজ ৮ম দিনেও আন্দোলন ও আমরণ অনশন করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ