মা নিজের জীবন দিয়ে গেছেন

প্রকাশিত: ০১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:০৫:৪৪

বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের সাহস ও ত্যাগের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বলেছেন, আমার মা বীরের মতো বুলেটের সামনে বুক পেতে দিয়েছিলেন।

শনিবার (৩১ আগস্ট) বিকেলে গণভবন প্রাঙ্গণে ছাত্রলীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় সংগঠনটির নেতা-কর্মীদের আদর্শ ও ত্যাগের রাজনীতি করার পরামর্শ দিতে গিয়ে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমার মা তিনিও কিন্তু নিজের জীবনটা দিয়ে গেছেন। ৩২ নম্বর বাড়িতে যখন আমার বাবাকে হত্যা করা হয়, আমার মাকে খুনিরা বলেছিল আপনি চলেন, আমার মা বললেন কোথাও তো যাবো না। ওনাকে খুন করেছো আমাকেও শেষ করে দাও। আমি এখান থেকে এক পা-ও নড়বো না।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমার মা কিন্তু ওদের কাছে জীবন ভিক্ষা চায় নি। তাদের কাছে কোন আকুতি মিনতি করেননি। বীরের মত বুক পেতে দিয়েছিলেন বুলেটের সামনে। সেই কথা সকলকে মনে রাখতে হবে।’

‘৩২ নম্বরে লাশগুলো পড়েছিল, কোন দাফন-কাফন দেওয়া হয়নি। ওই বনানী কবরস্থানে মাটি খুঁড়ে রেখে দেওয়া হয়েছিল।’

বঙ্গবন্ধু কন্যা বলেন, ‘আর বাবাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল টুঙ্গীপাড়ায়, তখন অনেক দুর্গম পথ ছিল, ভেবেছিল কেউ কখনো সেখানে যেতে পারবে না। রিলিফের শাড়ির পাড় ছিঁড়ে তাকে দাফন করা হয়েছিল। দুর্ভাগ্য আমাদের কাছ থেকে তার নামটাও মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছিল।’

প্রজন্মনিউজ/দেলাওয়ার হোসাইন

 

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ