জিবিএক্স লজিস্টিকে হাই কোর্টে তলব

প্রকাশিত: ৩০ অগাস্ট, ২০১৯ ১১:০৫:৫৪

হাপাগ-লয়েডসহ সমুদ্রপথে পণ্য পরিবহনকারী আন্তর্জাতিক কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের দেশীয় এজেন্ট জিবিএক্স লজিস্টিকস লিমিটেডের আয়কর সংক্রান্ত সব নথি তলব করেছে হাই কোর্ট।

আগামী ১৪ অক্টোবরের মধ্যে এ সংক্রান্ত নথি আদালতে দাখিল করতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) নির্দেশ দিয়েছে বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের বেঞ্চ। একটি রিট আবেদনের শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার উচ্চ আদালতের এই আদেশ আসে।

রিট আবেদনটি করেন আইনজীবী মনজুর নাহিদ। ‘৫৬ কোটি টাকার আয়কর দাবি পড়ে আছে এনবিআরে’ এই শিরোনামে দৈনিক ইত্তেফাকে গত ৫ অগাস্ট প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে আবেদনটি করা হয়।

আবেদনকারীর কৌঁসুলি অনীক আর হক বলেন, “ইনকাম ট্যাক্স সংক্রান্ত জিবিএক্সের যত ফাইল আছে, সে ফাইলগুলো কোর্টের সামনে হাজির করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আগামী ১৪ অক্টোবরের মধ্যে এসব নথি দিতে বলা হয়েছে।”

ফ্রেইট ফরওয়ার্ডিং কোম্পানি জিবিএক্স লজিস্টিকস প্রায় ৫৬ কোটি টাকা কর ফাঁকি দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

২০১৫-১৬ অর্থবছরে কোম্পানিটি ওরিয়েন্ট এক্সপ্রেস লাইন এবং হাপাগ-লয়েড থেকে যে কমিশন পাওয়ার তথ্য দেখায়, তা নিয়ে সন্দেহের পর এনবিআরের সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স সেল তদন্ত করে বিভিন্ন ব্যাংকে কোম্পানিটির মোট ছয়টি একাউন্টের সন্ধান পায়। তারা দেখতে পায়, ওই সময়ে কোম্পানিটির একাউন্টগুলোতে কমিশন বাবদ মোট জমা হয়েছে ১৬১ কোটি ২৫ লাখ ১৬ হাজার ৮৬৯ টাকা।

তদন্তে এমন তথ্য পেয়ে এনবিআর ২০১৮ সালের ৭ অগাস্ট জিবিএক্স লজিস্টিকসকে নোটিস দেয়। তখন ওই বছরের ২৬ সেপ্টেম্বর করদাতা কোম্পানির প্রতিনিধি হিসেবে ইমামুল হোসেন তালুকদার হাজির হয়ে তিন সময়ের আবেদন করেন।

তখন ওই কোম্পানিকে তিন মাস সময়ে দিয়ে ২০১৮ সালের ২৬ ডিসেম্বর শুনানির দিন ধার্য করা হলেও ওই দিনে কেউ হাজির হননি। এরপর থেকে বারবার চিঠি দেওয়া হলেও কোম্পানির পক্ষ থেকে সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন এনবিআরের একজন কর্মকর্তা।

প্রজন্মনিউজ/দেলাওয়ার হোসাইন।

    

    

    

 

 

 

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ