ভাড়া বাড়াতে বাস মালিকদের প্রস্তাব

প্রকাশিত: ২৯ অগাস্ট, ২০১৯ ০৪:৪৭:২৫ || পরিবর্তিত: ২৯ অগাস্ট, ২০১৯ ০৪:৪৭:২৫

বাসের ভাড়া বাড়ানোর আবেদন জানিয়ে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ, বিআরটিএতে চিঠি পাঠিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। যুক্তি হিসেবে মালিক সমিতি বলছে, গত কয়েক বছরে দ্রব্যমূল্য বাড়লেও বাসের ভাড়া বাড়েনি।

বিআরটিএ বলছে, তারা বাজার পর্যালোচনা করবেন। যদি মনে হয়, গণপরিবহনের ভাড়া পুনর্মূল্যায়নের প্রয়োজন আছে, তাহলে তারা মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠাবেন।

সিএনজি ও ডিজেলচালিত বাসের ভাড়া পুনর্নির্ধারণের আবেদন জানিয়ে গত ৬ জুলাই বিআরটিএর চেয়ারম্যানকে চিঠি পাঠায় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি।

সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ স্বাক্ষতির চিঠিতে বলা হয়, এ বছরের ১ জুলাই থেকে সিএনজির দাম প্রতি ঘনমিটারে ৩৮ টাকা থেকে ৫ টাকা বাড়িয়ে ৪৩ টাকা করা হয়। এ কারণে যানবাহনের পরিচালনা ব্যয় সাড়ে ৭ শতাংশ বেড়ে গেছে। ঢাকা ও আশপাশের জেলায় চলাচলকারী বাস-মিনিবাসের ৪০ শতাংশ সিএনজিতে চলে। সিএনজিচালিত বাসের ভাড়া সবশেষ ২০১৫ সালে পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছিল। এছাড়া গত ৪ বছর ধরে ডিজেলচালিত বাসের ভাড়াও বাড়ানো হয়নি।

চিঠিতে বলা হয়, “বিগত অর্থ বছরগুলোর বাজেটে গাড়ির টায়ার-টিউব,খুচরা যন্ত্রাংশের আমদানি শুল্ক বহুগুণ বেড়েছে, এতে গাড়ির পরিচালন ব্যয়ও বেড়েছে। এ কারণে সারাদেশের পরিবহন মালিকরা ভীষণ ক্ষতির মুখে পড়েছেন।”

যানবাহনের অতিরিক্ত ব্যয়ের বিষয়টি বিবেচনা করে ঢাকাসহ সারাদেশের সিএনজি ও ডিজেলচালিত বাস ও মিনিবাসের ভাড়া বাড়ানোর অনুরোধ জানানো হয় চিঠিতে।

প্রজন্মনিউজ/ দেলাওয়ার হোসাইন

 

 

 

 

 

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ