ফেসবুকে আসছে নতুন মেসেজিং অ্যাপ

প্রকাশিত: ২৭ অগাস্ট, ২০১৯ ০২:০১:৫৫ || পরিবর্তিত: ২৭ অগাস্ট, ২০১৯ ০২:০১:৫৫

মানুষ এখন যোগাযোগের ক্ষেত্রে নানা রকম মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করছে। ফেসবুকের মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপের মতো অ্যাপ্লিকেশনগুলো এখন দারুণ জনপ্রিয়। এরপরও আরেকটি পৃথক বার্তা আদান–প্রদান করার সেবা তৈরিতে হাত দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। নতুন এই অ্যাপ্লিকেশনের নাম হতে পারে ‘থ্রেডস’। যাঁরা বন্ধুদের সঙ্গে বেশি তথ্য শেয়ার করতে চান, অ্যাপ্লিকেশনটি মূলত তাঁদের লক্ষ্য করেই তৈরি। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য ভার্জের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

দ্য ভার্জের প্রতিবেদন অনুযায়ী, অ্যাপটি ইনস্টাগ্রামের সঙ্গী হিসেবে চালু করতে চাইছে ফেসবুক। অ্যাপটিতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অবস্থান, গতি, ব্যাটারির চার্জ প্রভৃতি তথ্য শেয়ার হয়ে যাবে। এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগের অন্যান্য কনটেন্ট, যেমন: ছবি ও টেক্সট শেয়ার করা যাবে। অ্যাপটি শুধু ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের মাঝে ব্যবহারের জন্যই চালু করছে। এখন অ্যাপটি পরীক্ষামূলক অবস্থায় রয়েছে।

অ্যাপটি কবে নাগাদ চালু হবে, এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

চলতি বছরের শুরুর দিকে ডাইরেক্ট নামের একটি অ্যাপ্লিকেশন থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করে নিয়েছিল ফেসবুক। এ অ্যাপটি মূলত স্ন্যাপচ্যাট অ্যাপের আদলে তৈরি ছিল। অ্যাপটি ২০১৭ সালে চিলি, ইসরায়েল, ইতালি, পর্তুগাল, তুরস্ক ও উরুগুয়েতে পরীক্ষা চালানো হয়েছে। তবে বৈশ্বিক পর্যায়ে তা চালু করার আগেই বন্ধ করে দেওয়া হয়।

গত জানুয়ারি মাসে হোয়াটসঅ্যাপ, মেসেঞ্জার ও ইনস্টাগ্রাম সেবা একীভূত করার পরিকল্পনার কথা জানায় ফেসবুক। এতে অ্যাপ পরিবর্তন না করেও ব্যবহারকারী এসব সেবাতে বার্তা পাঠাতে পারবেন। অ্যাপগুলো আলাদা থাকলেও একটি মেসেজিং প্ল্যাটফর্মের আওতায় আনার ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল।

প্রজন্মনিউজ/দেলাওয়ার হোসাইন

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ