জনসন অ্যান্ড জনসনকে ৫৭.২ কোটি ডলার জরিমানা

প্রকাশিত: ২৭ অগাস্ট, ২০১৯ ১১:২৯:৪৫

যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমার এক আদালত সোমবার স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান জনসন অ্যান্ড জনসন তথা জেঅ্যান্ডজে’কে ৫৭.২ কোটি ডলার জরিমানা করেছে। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৪ হাজার ৮৪১ কোটি টাকার বেশি।

নির্দিষ্ট খাতে বিশ্বের বৃহত্তম কোম্পানিটির বিরুদ্ধে মাদকাসক্তিজনিত সংকটে রসদ জোগানের অভিযোগ আনা হয়েছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানা যায়, নিষিদ্ধ ওপিওয়েড তৈরিকারক ও বিতরণকারীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা হাজার খানেক মামলার মধ্যে জেঅ্যান্ডজে’র বিরুদ্ধে মামলাটিই প্রথম আদালতে উঠল।

উচ্চমাত্রার আসক্তিসম্পন্ন ব্যথানাশক ওষুধের ব্যবস্থাপত্র দেওয়ার জন্য কূটকৌশলে প্রচারণা চালিয়ে ‘জনসাধারণের জন্য ক্ষতিকর পরিস্থিতি’ সৃষ্টিতে জেঅ্যান্ডজে মদদ দিয়েছে। আইনজীবীরা বিষয়টি প্রমাণ করতে পেরেছেন বলে জানান বিচারক থাড বাল্কম্যান।

তিনি বলেন, জেঅ্যান্ডজে’র এই পদক্ষেপগুলো ওকলাহোমার হাজার হাজার মানুষের স্বাস্থ্যকে ঝুঁকির মুখের ফেলে দিয়েছে। যা সুরক্ষা নীতির সঙ্গে আপস।

ওপিওয়েড বলতে সাধারণত এমন কোনো রাসায়নিক বস্তুকে বোঝায় যা শরীরে মরফিনের মতো প্রতিক্রিয়া তৈরি করে। বিচারক জানান, জেঅ্যান্ডজে’কে জরিমানা করা টাকা ওপিওয়েড আসক্তদের চিকিৎসা ও নিরাময়ের জন্য ব্যবহার করা হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, ১৯৯৯ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত মাত্রাতিরিক্ত ওপিওয়েড সেবনের কারণে প্রায় চার লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে জেঅ্যান্ডজে’র দায় রয়েছে ৭০ হাজার মৃত্যুতে। আইনজীবীদের দাবি ২০০০ সাল থেকে ওকলাহোমায় মাত্রাতিরিক্ত ওপিওয়েড সেবনের কারণে অন্তত ছয় হাজার ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

এর আগেও জনসন অ্যান্ড জনসনের বিরুদ্ধে পণ্যে ক্ষতিকর পদার্থ ব্যবহারের অভিযোগ উঠে। তাদের বেবি পাউডার ব্যবহারের কারণে ক্যানসার আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া এক নারীর পরিবারকে ৭০ লাখ ২০ হাজার ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে আদেশ দেয়  মিজৌরির একটি আদালত।

জেঅ্যান্ডজে দাবি করে কোম্পানিটি মাত্র ১ ভাগ ওপিওয়েড বিক্রি করে থাকে। সরকারি কৌঁসুলিরা বলেন, তারা বাকি ওষুধ বিক্রি করে থার্ড পার্টির কাছে।

এদিকেও ওহিও, ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় একই মামলা দায়ের করা হয়েছে জনসন অ্যান্ড জনসনের বিরুদ্ধে।

তবে এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলে জানান জেঅ্যান্ডজে’র আইনজীবী।

প্রজন্মনিউজ/দেলাওয়ার হোসাইন।

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ