তিস্তার পানি বণ্টনে অনড় অবস্থানে ভারত

প্রকাশিত: ২০ অগাস্ট, ২০১৯ ০৫:৩৪:১৭

বাংলাদেশ সফররত ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর বলেছেন, তিস্তা নদীর পানি বণ্টন চুক্তি নিয়ে ভারত আগের অবস্থানেই আছে। ভারত সেই অবস্থানে এখনো প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এ অবস্থানের কোনো পরিবর্তন হয়নি।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের বিষয়ে জয়শঙ্কর বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের মাতৃভূমি মিয়ানমারের রাখাইনে নিরাপদে, দ্রুত এবং টেকসই প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে আমরা উভয় দেশ একমত। ভারত এ বিষয়ে বাংলাদেশকে সার্বিক সহায়তা দেবে।’

এ সময় বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ককে দক্ষিণ এশিয়ার রোল মডেল হিসেবে আখ্যায়িত করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

আসামের ‘ন্যাশনাল রেজিস্ট্রার অব সিটিজেন (এনআরসি)’-এর বিষয়ে জানতে চাইলে জয়শঙ্কর বলেন, এটি সম্পূর্ণই ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।

এর আগে বেলা ১১টা ১০ মিনিটে দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক শুরু হয়। বৈঠক শুরুর আগে ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে যান এবং সেখানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

বিকেল ৫টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে সাক্ষাৎ করবেন এস জয়শঙ্কর। সন্ধ্যায় তাঁর সম্মানে নৈশভোজের আয়োজন করবেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাশ।

গতকাল সোমবার রাতে বাংলাদেশ সফরে আসা জয়শঙ্কর সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের মধ্যে ভালো ও দৃঢ় সম্পর্ক রয়েছে। আমাদের সম্পর্ককে আরো উচ্চ পর্যায়ে নেওয়ার জন্য বাংলাদেশ ও ভারতের অনেক বিষয়ই আলোচনা করার মতো রয়েছে।’

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার ক্রমবর্ধমান সম্পর্ককে এগিয়ে নিতে বিভিন্ন দ্বিপক্ষীয় বিষয়ে আলোচনার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী অক্টোবরে ভারত সফর করবেন। তিনি ৩ ও ৪ অক্টোবর নয়াদিল্লিতে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিটে যোগ দেবেন বলে এক কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে।

প্রজন্মনিউজ/দেলাওয়ার হোসাইন।

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ