শোক দিবসের অনুষ্ঠানে সংঘর্ষ, পুলিশ সদস্যসহ আহত ৭

প্রকাশিত: ১৬ অগাস্ট, ২০১৯ ০২:২২:৩৩

নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি পালনের সময় আওয়ামী লীগের দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে পুলিশের চার সদস্যসহ আহত হয়েছেন সাতজন। পরিস্থিতি সামাল দিতে কাঁদানে গ্যাসের শেল ও রাবার বুলেট ছুড়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলা শহরে এ ঘটনা ঘটে। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন উপপরিদর্শক (এসআই) মামুনুর রশীদ, কনস্টেবল মেহেদী হাসান, সাইফুল ইসলাম ও রুবেল ইসলাম। আহত তিন পথচারীর মধ্যে দুজনের নাম জানা গেছে। তাঁরা হলেন শাহিনুর রহমান ও দুলাল হোসেন।

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে এসআই মামুনুর রশীদকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকি সবাই জলঢাকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আশরাফ হোসেনের সভাপতিত্বে শোক দিবসের আলোচনা সভায় বক্তব্য দিচ্ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান।

এ সময় ডালিয়া সড়ক হয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনছার আলীর নেতৃত্বে একটি শোক র‌্যালি সেখানে আসে। বঙ্গবন্ধু চত্বরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করার পর হঠাৎ করে দুপক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া শুরু হয়।

একপর্যায়ে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। পরে পুলিশ রাবার বুলেট ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রুহুল আমিন বলেন, শোক দিবসের কর্মসূচি পালনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুটি গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় ১৩টি কাঁদানে গ্যাসের শেল ও ১৫টি রাবার বুলেট নিক্ষেপ করা হয়। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে এসআই মামুনুর রশীদকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ